আজ ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

১১ দফা দাবিতে ধর্মঘটে সাকিব-তামিমরা

ভারত সফর সামনে রেখেই বড়সড় আঘাত আসতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে। বেতন-ভাতাসহ নানা অসংগতি নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ওপর অসন্তোষ থেকে আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছেন দেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা।

সোমবার সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে মিরপুরে বিসিবির একাডেমি মাঠে জড়ো হয়েছেন খেলোয়াড়রা। তাদের দাবির বিষয়গুলো তুলে ধরেছেন একে একে। প্রথমে তারা তাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিসিবিতে। এরপর বিসিবি একাডেমির সামনে এসে জড়ো হন তারা। এরপর মিডিয়ার সামনে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরলেন সাকিব আল হাসান।

এ সময় সব ধরনের ক্রিকেট বর্জন ঘোষণা করেন ক্রিকেটাররা। দাবি না মাতা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে ঘোষণা দেন সাকিব। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সাকিব-তামিম-মুশফিক-মাহমুউল্লাহসহ অন্যান্য ক্রিকেটাররা।

জাতীয় লিগ, ঘরোয়া লিগ, জিমের সুবিধা, বাজে আম্পায়ারিংসহ নানা ইস্যূতে ধর্মঘট করছেন ক্রিকেটাররা। ঘরোয়া ক্রিকেটে মান উন্নয়ন ও বেতন-ভাতা বাড়ানোসহ ১১ ধফা দাবি উত্থাপণ করেন ক্রিকেটাররা। সাকিব আল হাসানসহ অন্যান্য ক্রিকেটার বিষয়গুলো নিয়ে সম্মেলনে কথা বলেন। প্রথমে সাকিব কথা বলে অন্যান্যদের কথা বলার সুযোগ করে দেন।

সম্মেলনের শেষের দিকে আবারও সাংবাদিকদের সামনে এসে সাকিব বলেন, ‘যে দাবিগুলো করা হয়েছে, তা না মানা পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ থাকবে।’

মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘গত কয়েক বছর ধরে জানেন প্রিমিয়ার লিগের পরিস্থিতি কি। এটা নিয়ে কম বেশি সবাই অসন্তুষ্ট। এখানে পারিশ্রমিকের একটা মানদণ্ড বেঁধে দেয়া হয়েছে। খেলোয়াড়দের অনেক লিমিটেশন দেয়া হয়েছে। আগে যেমন ছিল, তেমনটা নেই। খেলোয়াড়রা আগে বাছাই করতে পারতো, কোন দলে খেলবে, পারিশ্রমিক কেমন হবে। আমাদের দাবি হলো আগের মতো যেন প্রিমিয়ার লিগটা ফিরে পাই।’

ক্রিকেটারদের ১১ দাবি:

১. কোয়াবের বর্তমান কমিটিকে অবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে।

২. প্রিমিয়ার লিগ আগের মত দল-বদলের নিয়ম করতে হবে। যে যার পছন্দমত দলে যাবে।

৩. এ বছর না হোক, তবে পরের বছর থেকে আগের মত বিপিএল করতে হবে, লোকাল ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাড়াতে হবে।

৪. প্রথম শ্রেণির ম্যাচ ফি ১ লাখ, বেতন বাড়াতে হবে, বারো মাস কোচ ফিজিও দিতে হবে, প্রতি বিভাগে প্র্যাকটিসের ব্যবস্থা করতে হবে

৫. আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে বল দিয়ে খেলা হয় ঘরোয়া লিগে সেই বল ব্যবহার করতে হবে , দৈনিক ভাতা ১৫০০ টাকায় কিছু হয় না. তা বাড়াতে হবে। এক ভেন্যু থেকে আরেক ভেন্যুতে যাবার জন্য প্লেন ভাড়া দিতে হবে, হোটেল ভালো হতে হবে, জিম ও সুইমিংপুল সুবিধা থাকতে হবে

৬.চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারের সংখ্যা ও বেতন বাড়াতে হবে

৭ .দেশি সব স্টাফদের বেতন বাড়াতে হবে, কোচ থেকে গ্রাউন্ড স্টাফ, আম্পায়ার সবার বেতন বাড়াতে হবে।

৮. ঘরোয়া ক্রিকেটে ওয়ানডে টুর্নামেন্ট বাড়াতে হবে, বিপিএলের আগে আরেকটি টি-২০ টুর্নামেন্ট খেলতে চায়।

৯.ঘরোয়া ক্যালেন্ডার ফিক্স হতে হবে

১০.ডিপিএলের পাওনা টাকা সময়ের মধ্যে দিতে হবে

১১. ফ্র‍্যাঞ্চাইজি লিগ দুটার বেশি খেলা যাবে না নিয়ম তুলে দিতে হবে। সুযোগ থাকলে সবাই খেলবে।

Comments are closed.

      আরও নিউজ