আজ ৫ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

উদ্ভাবনী ১০০ নারীর তালিকায় সায়মা ওয়াজেদ

‘বৈশ্বিক মানসিক স্বাস্থ্যে উদ্ভাবনী নারী নেতৃত্বের’ ১০০ জনের একটি তালিকায় জায়গায় পেয়েছেন এ বিষয়ে বিশ্ব  স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল।

সম্প্রতি নিউ ইয়র্কের কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটিভিত্তিক ‘গ্লোবাল মেন্টাল হেলথ প্রোগ্রামস কনসোর্টিয়ামের’ চেয়ার ড. ক্যাথলিন পাইক ‘ফাইভ অন ফ্রাইডে’ শিরোনামে ব্লগে এই তালিকা তুলে ধরেছেন।

মানসিক রোগ অনুধাবন, প্রতিরোধ ও চিকিৎসার উন্নয়নে অগ্রদূত এসব নারীর ব্যক্তিগত ও সামষ্টিক উদ্যোগ বিবেচনায় নিয়ে পরিচিতজনদের মধ্য থেকে নামের অদ্যাক্ষরের ভিত্তিতে তালিকাটি করা হয়েছে।

তবে এটা কোনো বার্ষিক তালিকা নয়। গত মাসের শুরুর দিকে ফোর্বস ম্যাগাজিনে প্রকাশিত আমেরিকার সবচেয়ে উদ্ভাবনী ১০০ নেতার এবছরের তালিকার প্রতিক্রিয়ায় এটা তৈরি।

শুধুমাত্র একজন নারী ফোর্বসের ওই তালিকায় জায়গা পেয়েছেন। এর প্রতিক্রিয়ায় ড. পাইক মানসিক স্বাস্থ্যে উদ্ভাবনী নারীর নেতৃত্বের এই তালিকা তৈরি করেন।

ফোর্বসের দৃষ্টিভঙ্গির সমালোচনা করে তিনি লিখেছেন, “আমি আশা করি, উদ্ভাবন কোনো বিশেষ লিঙ্গের একার সম্পত্তি নয়- মানসিক স্বাস্থ্য বলুন, আর ব্যবসাই বলুন, কোথাও না।”

পুতুল ডাকনামে পরিচিত বঙ্গবন্ধুর নাতনি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা বাংলাদেশে অটিজমসহ মানসিক স্বাস্থ্য সেবার প্রসারে নিয়োজিত। তিনি অটিজম বিষয়ক বাংলাদেশের জাতীয় উপদেষ্টা পরিষদের সভাপতি।

২০১৭ সালে ডব্লিউএইচও তাকে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের ‘শুভেচ্ছা দূত’ নিয়োগ দেয়।

স্কুল সাইকোলজিস্ট হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে সনদপ্রাপ্ত সায়মাকে এর আগে এ অঞ্চলের জন্য অটিজম বিষয়ক চ্যাম্পিয়ন নিয়োগ দেয় ডব্লিউএইচও।

ওই বছরই ভুটানে আন্তর্জাতিক সম্মেলনে অটিজমসহ স্নায়ু বৈকল্য বিষয়ে ‘থিম্পু ঘোষণা’ প্রণয়নে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।

অটিজম বিষয়ে জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অবদানের জন্য ডব্লিউএইচও তাকে ২০১৪ সালের জন্য ‘এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ দিয়েছে।

ডব্লিউএইচওর মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ উপদেষ্টা প্যানেলের সদস্য সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের উদ্যোগেই ২০১১ সালে ঢাকায় প্রথমবারের মতো অটিজম বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

Comments are closed.

      আরও নিউজ

ফেসবুক পেইজ