Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / নিহত ২ জঙ্গি রাবি শিক্ষক ও বগুড়ার মুয়াজ্জিনের খুনি

নিহত ২ জঙ্গি রাবি শিক্ষক ও বগুড়ার মুয়াজ্জিনের খুনি

  • ০৭-০৬-২০১৬
  • 788

    ঢাকা : মিরপুরে বন্দুকযুদ্ধে নিহত একজন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রফেসর রেজাউল করিমের হত্যাকারী। অন্যজন বগুড়া শিয়া মসজিদে হামলাকারী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

    মঙ্গলবার (৭ জুন) বেলা সাড়ে ১২টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এসব তথ্য জানান কাউন্টার টেরোরিজমের (সিটি) প্রধান মনিরুল ইসলাম।

    নিহত জঙ্গিরা হল— তারেক হোসেন মিলু ওরফে ইলিয়াস ওরফে ওসমান (৩৫) এবং সুলতান মাহমুদ ওরফে রানা ওরফে কামাল (৪২)।

    মনিরুল ইসলাম জানান, বন্দুকযুদ্ধে নিহত ওসমান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রেজাউল করিমকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। ওসমান ওই ঘটনার নেতৃত্বে ছিলেন। ওসমানের দেশের বাড়ি জয়পুরহাট।

    বন্দুকযুদ্ধে নিহত আরেকজন সুলতান মাহমুদ ওরফে রানা ওরফে কামাল। তার দেশের বাড়ি দিনাজপুর। তিনি বগুড়া শিয়া মসজিদে গুলি চালিয়ে ১ জনকে হত্যা করে।

    সকালে রাজধানীর পল্লবী থানার কালশী এলাকায় গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই জেএমবি সদস্য নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছিল পুলিশ। পরে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে বলেছিল পুলিশ কর্মকর্তারা।

    গত ২৩ এপ্রিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক এ এফ এম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে (৫০) কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করে উগ্রবাদী গোষ্ঠী।

    ওইদিন সকালে সাড়ে ৭টার দিকে বাড়ি থেকে বের হন বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্দেশে। ৫০ গজ যাওয়ার পর বোয়ালিয়া থানার শালবাগান এলাকার বটতলা মোড়ে তাকে হত্যা করা হয়। দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে পেছন থেকে তার ঘাড়ে কোপ দেয়। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

    গত বছরের ২৬ নভেম্বর সন্ধ্যার পর শিবগঞ্জ উপজেলার হরিপুর-চককানু গ্রামে শিয়া সম্প্রদায়ের আল-মোস্তফা জামে মসজিদে নামাজরত অবস্থায় অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের গুলিবর্ষণে মোয়াজ্জিন নিহত হন। গুলিবিদ্ধ হন তিন মুসল্লি।

    সকালে পুলিশের গুলিতে নিহত জঙ্গি সুলতান মাহমুদ ওরফে রানা ওরফে কামাল ওই হামলায় সরাসরি জড়িত ছিলেন বলে জানিয়েছেন কাউন্টার টেরোরিজমের (সিটি) প্রধান মনিরুল ইসলাম।

     

    (Visited 14 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *