Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / বঙ্গবন্ধুর জীবনচিত্র দেখানো হবে ৬৬ হাজার স্কুলে ।। songbadprotidinbd.com

বঙ্গবন্ধুর জীবনচিত্র দেখানো হবে ৬৬ হাজার স্কুলে ।। songbadprotidinbd.com

  • ০৬-০৮-২০১৯
  • image-82284-1565064215সংবাদ প্রতিদিন বিডি ডেস্কঃ  জাতীয় শোক দিবসে আগামী ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে নির্মিত একটি বিশেষ তথ্যচিত্র (ডকুমেন্টারি) দেখানো হবে শিশুদের। সারাদেশের ৬৫ হাজার ৯০১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একযোগে দেখানো হবে এ তথ্যচিত্র। এতে বঙ্গবন্ধুর ছেলেবেলা থেকে শুরু করে রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন পর্যন্ত জীবনের নানা দিক স্থান পাবে। কোমলমতি শিশুদের মাঝে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী সম্পর্কে জানাতেই সরকার প্রথমবারের মতো এ উদ্যোগ নিয়েছে। ইতিমধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এ জন্য বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

    ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। ইতিহাসের এ নির্মম ও নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের পর বিভিন্ন সময়ে যারা সরকারে ক্ষমতায় ছিলেন, তারাই বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে কয়েকটি প্রজম্মের মধ্যে নেতিবাচক ধারণা দিয়েছেন। এসব কারণে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সঠিক ধারণার অভাব পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে রয়েছে বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের নীতিনির্ধারকরা। অথচ বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ লাভ করতে বঙ্গবন্ধুর ডাকে জাতি স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নিয়েছিল। স্বাধীনতা অর্জনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য অবদান অনস্বীকার্য।

    অথচ ‘৭৫-পরবর্তী সরকারগুলো তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে কোমলমতি শিশুদের মধ্যে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য প্রচার করেছে। এমনকি পাঠ্যপুস্তকেও তা অন্তর্ভুক্ত করে শিক্ষার্থীদের ভুল ধারণা দেওয়া হয়। এসব বিভ্রান্তি দূর করতে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান ও ধারণা দিতে সরকার উদ্যোগ নিয়েছে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তৈরি করা হয়েছে এ ডকুমেন্টারি। এটি দেখানোর জন্য প্রাথমিকভাবে সারাদেশের প্রতিটি স্কুলের জন্য ২ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। সব মিলিয়ে ১৩ কোটি টাকা অর্থ ছাড় দেওয়া হয়েছে। ৬৫ হাজার ৯০১ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এসব টাকা বণ্টন করা হবে।

    একই সঙ্গে ১৫ আগস্ট সামনে রেখে শিশুদের মধ্যে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বঙ্গবন্ধুর ওপর প্রামাণ্যচিত্র, দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক ভূমিকা, দেশের স্বাধীনতা অর্জনে তার অবিসংবাদিত অবদানসহ অন্যান্য বিষয় সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া হবে শিক্ষার্থীদের। শ্রেণিকক্ষে তার কর্মজীবন সম্পর্কে দেখানো হবে প্রজেক্টরের মাধ্যমে।

    ভাষা আন্দোলন, ছয় দফা আন্দোলন, স্বাধিকার আন্দোলন, গণঅভ্যুত্থান ও মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অবদান বড় পর্দায় তুলে ধরা হবে শিশুদের সামনে।

    প্রামাণ্যচিত্র দেখানোর পাশাপাশি ১৫ আগস্টে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর জীবনের ওপর আলোকচিত্র, রচনা প্রতিযোগিতা, উপস্থিত বক্তৃতা ইত্যাদি কর্মসূচিও গ্রহণ করা হয়েছে।

    প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হোসেন জানান, দেশের ৬৫ হাজার ৯০১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৫ আগস্টে ওই কর্মসূচি পালিত হবে। এ জন্য পুরস্কারের ব্যবস্থাও থাকবে। তাতে মোট ব্যয় হবে ১ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

    গণশিক্ষা সচিব জানান, স্বল্পদৈর্ঘ্য আলোকচিত্র প্রদর্শন করা হবে সব স্কুলে। এটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লেখা ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’ বইয়ের আলোকে তৈরি করা হয়েছে, যা প্রদর্শনের জন্য সব স্কুলের মাল্টিমিডিয়া শ্রেণিকক্ষ ব্যবহার করা হবে।

    আকরাম আল হোসেন জানান, শুধু বঙ্গবন্ধুর জীবনী নয়; শিক্ষার প্রাথমিক স্তর থেকে শিশুদের বাল্য ও নৈতিক শিক্ষা কার্যক্রমও শুরু হবে। পারিবারিক অনুশাসন মান্য করার বাধ্যবাধকতাও থাকবে। প্রাথমিক শিক্ষায় বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে দীর্ঘ দিনের নেতিবাচক প্রচারণা দূর করে জাতিকে সঠিক ইতিহাস জানানোই এর উদ্দেশ্য বলে জানান প্রাথমিক শিক্ষা সচিব। তার মতে, শিশুতোষ মনে প্রকৃত শিক্ষা ও ইতিহাস জানানো গেলে তারা সেটি ধারণ করতে এবং আগামী প্রজন্ম প্রকৃত ইতিহাস জানতে পারবে।

    (Visited 12 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *