Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / এসএসসি ও সমমানে এবার পাসের হার ৮২.২০% ।। songbadprotidinbd.com

এসএসসি ও সমমানে এবার পাসের হার ৮২.২০% ।। songbadprotidinbd.com

  • ০৬-০৫-২০১৯
  • image-93601সংবাদ প্রতিদিন বিডি ডেস্কঃ  ২০১৯ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তে ফলাফল ঘোষণা করেন।

    এর আগে শিক্ষামন্ত্রীর হাতে ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা। দুপুর ১২টা থেকে ফল পাওয়া যাবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

    সাধারণত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন বোর্ড চেয়ারম্যানরা। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে শিক্ষামন্ত্রী ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রী লন্ডনে চোখের চিকিৎসায় অবস্থান করায় এবার বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ফল হস্তান্তর করেন।

    তবে প্রধানমন্ত্রী ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে লন্ডন থেকে একটি বাণী পাঠিয়েছেন। সেই বাণী পড়ে শোনান শিক্ষামন্ত্রী। পরে প্রধানমন্ত্রী মোবাইল ফোনে শেুভেচ্ছা জানিয়ে কথা বলেন। তা মাইকে শোনানো হয়।

    শিক্ষা উপমন্ত্রী মুহবিুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ আলমগীর এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

    এছাড়াও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ গোলাম ফারুক এবং বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

    এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবার ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। এরমধ্যে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী এবং ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র।

    দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়। ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ হয়।

    গত কয়েক বছর ধরে পরীক্ষা শেষের ৬০ দিনের মধ্যে পাবলিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হচ্ছে। আগামী ৯ মে পরীক্ষা শেষের ৬০তম দিন পূর্ণ হবে। এবার তার তিনদিন আগেই ফল প্রকাশ হতে যাচ্ছে।

    (Visited 4 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *