Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / সারাবাংলা / রাজশাহী / হিরো আলমের সঙ্গে ‘আপোষ’ করতে চান স্ত্রী-শ্বশুর ।। songbadprotidinbd.com

হিরো আলমের সঙ্গে ‘আপোষ’ করতে চান স্ত্রী-শ্বশুর ।। songbadprotidinbd.com

  • ২৫-০৩-২০১৯
  • বগুড়া প্রতিনিধি: কারাবন্দী আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলমের সঙ্গে ‘আপোষ’ করতে চান স্ত্রী-শ্বশুর। এ জন্য তারা আদালতে জামিন চেয়ে আবেদনও করেছেন। সোমবার বগুড়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকার এমন আবেদন দেখে হিরো আলমের তার স্ত্রী ও শ্বশুরকে ভৎর্সনা করেছেন।জানা যায়, হিরো আলমের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার আপোষনামা আদালতে দাখিল করে জামিন আবেদন করেন তার স্ত্রী ও শ্বশুর। পরে তা নাকচ করে আগামী ১৮ এপ্রিল হিরো আলমকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন বিচারক। ওই দিন হিরো আলমের উপস্থিতিতে তার জামিন শুনানি হবে মর্মে আদেশ দেন তিনি।

    হিরো আলমের আইনজীবী মাসুদার রহমান জানান, মামলার বাদী হিরো আলমের শ্বশুর সাইফুল ইসলাম আসামি পক্ষের সাথে মীমাংসা করে মামলা চালাবেন না, এই মর্মে এফিডেভিট আদালতে দাখিল করেন।

    বাদীর এই আপসনামার ভিত্তিতে সোমবার হিরো আলমের জামিন আবেদন করা হয়। জামিন আবেদন শুনানিকালে মামলার বাদী হিরো আলমের শ্বশুর, তার স্ত্রী সুমি বেগম এবং হিরো আলমের দুই সন্তান উপস্থিত ছিলেন।

    আদালত সূত্র জানায়, জামিন আবেদন শুনানিকালে বিচারক মামলার বাদী হিরো আলমের শ্বশুর এবং স্ত্রীর বক্তব্য শুনে দু’জনেকই ভৎর্সনা করেন।

    হিরো আলম দ্বিতীয় বিয়ে করার কারণে স্ত্রীকে মারধর করে, এমন বক্তব্যের স্বপক্ষে মামলার বাদী কোনো প্রমাণ দেখাতে না পারায় আদালত দুজনকেই ভৎর্সনা করেন।

    পরে হিরো আলমের জামিন না-মঞ্জুর করে আগামী ১৮ এপ্রিল জামিন আবেদন শুনানির দিন ধার্য করেন। ওই দিন হিরো আলমকে আদালতে হাজির করার পাশাপাশি তার স্ত্রী সুমি বেগম ও শ্বশুর সাইফুল ইসলামকে আদালতে উপস্থিত থাকতে বলা হয়।

    প্রসঙ্গত, যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর ও নির্যাতনের অভিযোগে হিরো আলমের শ্বশুর গত ৬ মার্চ বগুড়া সদর থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই রাতেই পুলিশ হিরো আলমকে গ্রেফতার করে এবং পরদিন আদালতে হাজির করে পুলিশ।

    আদালত জামিন না-মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়ায় গত ৭ মার্চ থেকে হিরো আলম কারাগারে রয়েছেন।

    (Visited 2 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *