Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / আন্তর্জাতিক / বাংলাদেশে ‘পক্ষপাতমূলক’ নির্বাচন হয়েছে: যুক্তরাষ্ট্র ।। songbadprotidinbd.com

বাংলাদেশে ‘পক্ষপাতমূলক’ নির্বাচন হয়েছে: যুক্তরাষ্ট্র ।। songbadprotidinbd.com

  • ১৪-০৩-২০১৯
  • image-64845-1552548634আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার প্রতিবেদনে বাংলাদেশে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনকে ‘পক্ষপাতমূলক’হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। কেবল নির্বাচন নয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই প্রতিবেদনে বাংলাদেশের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, গুম, নির্যাতন, বাক স্বাধীনতায় বাধা দেওয়া, দুর্নীতি এবং এনজিও বিষয়ক আইনকে অতিরিক্ত ‘কড়াকড়ি’বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

    মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রতি বছর মার্কিন কংগ্রেসের কাছে উত্থাপিত ওই প্রতিবেদনে বিশ্বের প্রায় ২০০ দেশ ও অঞ্চলের মানবাধিকার পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়। এই বার্ষিক প্রতিবেদনটি প্রস্তুতের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আইনে বাধ্যবাধকতা রয়েছে এবং এতে উপস্থাপিত তথ্য মার্কিন কংগ্রেস, প্রশাসন ও বিচার বিভাগ প্রামাণিক হিসেবে গ্রহণ করে।

    এই প্রতিবেদনে বর্ণিত তথ্যের ওপর নির্ভর করেই মার্কিন সরকার কোনও দেশকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া না দেওয়া এবং রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন মঞ্জুর করাসহ নানা বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে।

    বুধবার মার্কিন কংগ্রেসে ওই প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। এতে বাংলাদেশে গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচন সম্পর্কে বলা হয়েছে, হয়রানি, ভয়ভীতি, নির্বিচারে গ্রেপ্তার ও সহিংসতার কারণে বিরোধী দলীয় প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা স্বাধীনভাবে সভা-সমাবেশ ও প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারেননি। আর এসব অভিযোগের বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ রয়েছে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

    এতে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে নিরাপত্তা বাহিনীর ক্ষমতার অপব্যবহার ও তাদের দ্বারা সংগঠিত হত্যাকাণ্ডের অভিযোগের তদন্ত ও দায়ীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে সরকার খুব কম পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

    প্রতিবেদনে বাংলাদেশের শ্রম ও কর্ম পরিবেশ সম্পর্কে বলা হয়েছে, নানা তৎপরতা বৃদ্ধির ফলে তৈরি পোশাক শিল্প খাতের কিছু প্রতিষ্ঠানে কর্মপরিবেশের উন্নতিতে বেশ অগ্রগতি হয়েছে। তবে এখনও কমপ্লায়েন্স মেনে চলার ক্ষেত্রে পরিদর্শনসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ পুরোপুরি বাস্তবায়ণ করা হয়নি। যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা না থাকায় বিধি ভঙ্গের প্রবণতাও কমছে না। একই সঙ্গে নূন্যতম মজুরি, কর্মঘন্টা নির্ধারণ, কর্মস্থলে নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সেবার মতো বিষয়গুলো পুরোপুরি নিশ্চিত করতে পারেনি সরকার।

    (Visited 6 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *