Templates by BIGtheme NET
Home / অর্থ ও বাণিজ্য / বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ৬৮৮২ কোটি টাকা, শীর্ষে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ।। songbadprotidinbd.com

বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ৬৮৮২ কোটি টাকা, শীর্ষে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ।। songbadprotidinbd.com

  • ১১-০২-২০১৯
  • image-60907-1549896690নিজস্ব প্রতিবেদক: বর্তমানে সরকারি, আধা সরকারি/ বেসরকারি ও প্রাইভেট সংস্থায় বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে ৬ হাজার ৮৮২ কোটি ৯৫ লাখ টাকা।সোমবার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে প্রশ্নোত্তরপর্বে আওয়ামী লীগের সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর লিখিত প্রশ্নের উত্তরে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু এ তথ্য জানান।

    তিনি জানান, এর মধ্যে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ও রয়েছে। গত বছর অক্টোবর পর্যন্ত হিসাব অনুযায়ী এই বকেয়া বিলের মধ্যে সব চেয়ে বেশি বকেয়া রয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ৩২ হাজার ৩৪০ কোটি টাকা।

    সংসদে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর দেওয়া তথ্যে ৬ হাজার ৮৮২ কোটি ৯৫ লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়ার মধ্যে সবচেয়ে কম বকেয়া রয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়ে মাত্র ২ হাজার টাকা।

    বিভিন্ন মন্ত্রলালয়ের মধ্যে বকেয়ায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বকেয়া ১৪২ কোটি ৪৮ লাখ, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের বকেয়া ১২৮ কোটি ৩৯ লাখ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের বকেয়া ৭৮ কোটি ১৬ লাখ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বকেয়া ৬২ কোটি ৫০ লাখ এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ৪৩ কোটি ১২ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে। আর সবচেয়ে কম শিল্প মন্ত্রণালয়ের মাত্র ২০ হাজার টাকা ও বাণিজ্যে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। তিনি আরো জানান, এসব বকেয়া বিল আদায়ে ট্রাক্সফোর্স গঠন করে ঝটিকা অভিযান চালান হচ্ছে। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছে। সেই সাথে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণসহ নানাবিধ পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

    প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে ২৭ কোটি ১১ লাখ ৬ হাজার টাকা, আইন ও বিচার মন্ত্রণালয় ৬ কোটি ৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা, ভুমি মন্ত্রণালয় ১০ কোটি ৩ লাখ ৯২ হাজার টাকাসহ ৪০টি মন্ত্রণালয়ের কাছে মোট ৬৪২ কোটি ৯৮ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে।

    এছাড়া সরকারি সংস্থার কাছে ৬৪২ কোটি ৯৮ লাখ টাকা, আধা সরকারি/বেসরকারি সংস্থা ৭৬৩ কোটি ৯০ লাখ, প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের কাছে ৫ হাজার ৪৭৬ কোটি ৬ হাজার টাকা বকেয়া।

    বিদ্যুতের বকেয়া বিল আদায় প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ের লক্ষ্যে টাক্সফোর্স গঠন করে ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করা হয়। বিল খেলাপি ও অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    (Visited 10 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *