Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / ব্রেকিং নিউজ / বিলুপ্তির পথে ২০ দলীয় জোট! ।। songbadprotidinbd.com

বিলুপ্তির পথে ২০ দলীয় জোট! ।। songbadprotidinbd.com

  • ১১-০১-২০১৯
  • image-56778-1547123895সংবাদ প্রতিদিন বিডি ডেস্কঃ  ২০ দলীয় জোটকে পাশ কাটিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাথে ঘনিষ্ঠ হয়ে ৩ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। কর্মসূচির বিষয়ে ২০ দলকে গুরুত্ব না দেওয়ার বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে দলটির প্রতি। আর এ জন্য জোট বিলুপ্তির পক্ষেও ২০ দলীয় জোটের নেতারা! ২০ দল বিলুপ্তির পক্ষে জোট নেতাদের ভাষ্য, বিএনপি যদি ২০ দলের চেয়ে ঐক্যফ্রন্টকে বেশি গুরুত্ব দেয় তাহলে সরকার এখানে সুযোগ নেবে। এতে ক্ষমতাসীনরা জোট ভাঙার পরিকল্পনা করবে। আর বিএনপি জোট গড়বে। ফলে জোট ভাঙা গড়ার খেলা খেলা চলবে। জোটের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

    গত ৮ জানুয়ারি কর্মসূচি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে শেষে ৩ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে ফ্রন্ট। কর্মসূচিগুলো হলো- জাতীয় সংলাপ, নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে দ্রুত মামলা করা হবে, নির্বাচনের সময় বেশি ক্ষতিগ্রস্ত জেলা পরিদর্শন, বিশেষ করে সিলেটের বালাগঞ্জে যাওয়া হবে- যেখানে ফ্রন্টের একজন কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে।

    এ বিষয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরীকদল বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান বলেন, ২০ দলীয় জোটকে পাশ কাটিয়ে ঐক্যফ্রন্টের সাথে ঘনিষ্ঠ হয়ে ৩ দফা কর্মসুচি দিয়েছে বিএনপি।। যদি বিএনপির কাছে ২০ দলীয় জোট গুরুত্বহীন মনে হয় তাহলে জোট বিলুপ্তির ঘোষণা দিলেই হয়। শুধু নামমাত্র জোট রেখে লাভ কি?

    এই স্ট্যাটাসের কমেন্টে মেজর হানিফ হৃদয়ে বাংলাদেশ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে লেখা হয়েছে, পরিকল্পিতভাবে ভুল পথে পরিচালিত করা হচ্ছে দলকে।

    সাখাওয়াত চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি লিখেছেন, লিডার- জোটের শরীকরা ও তো ওদের ছাড়তে পারে। বিএনপি এখন নেতাহীন দল।

    মোয়াজ্জেম হোসেন তানিম নামে আরেক ব্যক্তি লিখেছেন যে, ঐক্যফ্রন্ট বিএনপিকে কি দিল? কি লাভ হলো ঐক্য করে? ২০ দলীয় জোট যদি ঐক্যফ্রন্ট ছাড়াও নির্বাচন করতো তাহলে ফলাফল আরো ভাল হতো।

    এস এম করিম উদ্দিন নামে অপর এক ব্যক্তি লিখেছেন, ২০ দলীয় জোট এর প্রয়োজনীয়তা আছে বলে মনে করিনা।

    নাসিম গানি নামে একজন লিখেছেন, যেভাবে এগুচ্ছে মনে হচ্ছে কামাল-ফখরুল জোট। ফখরুল গংরা এমন এমন কাজ করবে যাতে করে বিএনপি বহিস্কার করতে বাধ্য হয়। তারপর যা হবার তাই হবে। মন্ত্রিসভায় যোগ দেবেন; এটা আমার একান্ত মতামত

    জানতে চাইলে আমিনুর রহমান বলেন, বিএনপির কাছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গুরুত্ব বেশি হয়ে যাচ্ছে। এক সময় বিএনপির জন্য বুমেরাং হবে।

    এ বিষয়ে ২০ দলীয় জোটের শরীকদল ডেমোক্রেটিক লীগের ‘ডিএল’ সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মণি বলেন, আমাকে কখনো গুরুত্ব কম দেয় না। আর অনেক সময় মনে হয়, গুরুত্ব কম দিচ্ছে। তবে আমাকে কখনো কম গুরুত্ব দেয়নি।

    এদিকে সর্বশেষ গত ৩১ ডিসেম্বর ২০ দলীয় জোটের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়ার ক্ষেত্রে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে বিএনপি। অপরদিকে দলটির পুরনো জোট ২০ দলকে কম গুরুত্ব দিয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন জোট নেতারা।

    ওই বৈঠকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ বলেন, নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়ার বিষয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিএনপির কাছে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার পেয়েছে। অপরদিকে ২০ দলীয় জোট অগ্রাধিকার পায়নি। আরো লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, বিএনপির কাছে ঐক্যফ্রন্টের প্রাধান্য বাড়ছে। আর ২০ দলীয় জোটের প্রাধান্য কমে যাচ্ছে।

    পার্থের এই বক্তব্যের সাথে একমত পোষণ করেন জাতীর পার্টির (কাজী জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার।

    সংবাদ প্রতিদিন বিডি / ই আ স 

    (Visited 15 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *