Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / ব্রেকিং নিউজ / আফরোজা আব্বাসের মনোনয়ন বৈধ ।। songbadprotidinbd.com

আফরোজা আব্বাসের মনোনয়ন বৈধ ।। songbadprotidinbd.com

  • ০৮-১২-২০১৮
  • image-52749-1544269366সংবাদ প্রতিদিন বিডি ডেস্কঃ  বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাসর তার মনোনয় ফিরে পেয়েছেন। শনিবার ইসির অস্থায়ী এজলাসে শুনানি শেষে তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

    ঢাকা-৯ আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী ছিলেন তিনি। তার মনোনয়ন বাতিল করে নির্বাচন কমিশন। এরপর আপিল করেন তিনি। শুক্রবার আপিলেও তার মনোনয়ন স্থগিত করে ইসি। আজ শনিবার আপিল শুনানি শেষে তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

    ইসি সূত্রে জানা গেছে, গত ২ ডিসেম্বর ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র বাছাইকালে ঋণ খেলাপির অভিযোগ মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। পরে নির্বাচন কমিশনে আফরোজা আব্বাসের আপিল করেন। আপিল নং ২৭৫ ঢাকা-৯ আসনের শুনানি শেষে আফরোজা আব্বাসের মনোনয়ন পত্র মঞ্জুর করে ইসির অস্থায়ী এজলাস।

    উল্লেখ, স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ট ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক ও ঢাকা টেলিফোন কোম্পানি লিমিটেডের কর্তৃপক্ষ আফরোজা আব্বাসের বিরুদ্ধে ঋণ খেলাপির অভিযোগ আনেন। এছাড়া আফরোজা আব্বাস ঋণ খেলাপি এই মর্মে বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি চিঠি আসে প্রার্থীতা বাছাইয়ের সময়।

    একইসঙ্গে মনোনয়ন ফিরে পেয়েছেন মির্জা আব্বাসও। শনিবার ইসির শুনানির পর তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়। মির্জা আব্বাস ঢাকা-৮ আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করে বৈধতা পেয়েছিলেন। কিন্তু সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন মির্জা আব্বাসের মনোনয়নপত্র বাতিল চেয়ে ইসিতে আপিল করেন। আর এ আবেদনের শুনানিতে অংশ নিতে আব্বাসও ইসিতে আসেন। শনিবার ইসির অস্থায়ী এজলাসে ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেননের করা আপিলং ৪৪৪ শুনানি শেষে তার মনোনয়ন পত্র বহালের আদেশ দেয় নির্বাচন কমিশন।

    শনিবার বিকালে মনোনয়ন ফিরে পেয়েছেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদাও। এর আগে তার মনোনয়ন বাতিল করেছিল নির্বাচন কমিশন। পরবর্তীতে আপিল করেছিলেন তিনি।

    নাজমুল হুদা আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র নিয়েছিলেন। যদিও পরবর্তীতে নির্বাচন কমিশনে যে মনোনয়নপত্র তিনি দাখিল করেছেন, তাতে কোনো দলের নাম কিংবা স্বতন্ত্র প্রার্থী, কোনোটাই উল্লেখ করেননি। রিটার্নিং কর্মকর্তা এজন্যই তার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করেন। ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা ঢাকা-১৭ আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

    বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের মন্ত্রী নাজমুল হুদা বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। পরে বিএনপি থেকে বেরিয়ে তিনি প্রথমে বিএনএফ গঠন করেন, ওই দলের কর্তৃত্ব হারানোর পর তিনি গঠন করেন তৃণমূল বিএনপি।

    (Visited 15 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *