Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / সারাবাংলা / বরিশাল / শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ ।। songbadprotidinbd.com

শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ ।। songbadprotidinbd.com

  • ২১-০৯-২০১৮
  • image-43824-1537512572ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক মো. আল-আমিন মাঝির বিরুদ্ধে একই কলেজের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর মা কলেজের অধ্যক্ষ ও জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ করেছেন।তিনি মামলা দায়েরের জন্য বৃহস্পতিবার ঝালকাঠি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তার কাছে এফিডেভিটও দিয়েছেন। তবে জেলা ও দায়রা জজ ছুটিতে থাকায় মামলা হয়নি।

    অভিযুক্ত শিক্ষক আল-অমিন মাঝি নলছিটি উপজেলার রানাপাশা গ্রামের মো. তৈয়বুর রহমান মাঝির ছেলে। বছরখানেক আগে সে ঝালকাঠি মহিলা কলেজে যোগদান করে।

    অভিযোগ থেকে জানা যায়, নির্যাতিত ছাত্রী ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজ থেকে এ বছর বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি পাশ করে। এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর কয়েক মাস আগে ফিজিক্স ক্লাসে আল-আমিন মাঝির সঙ্গে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের পরই আল-আমিন ওই ছাত্রীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ তার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ শুরু করে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি করে।

    উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হলে আল-আমিন মাঝি ওই ছাত্রীকে ফোন করে মহিলা কলেজে এনে মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার পরামর্শ ও সহায়তার আশ্বাস দেয়। সহযোগিতার আশ্বাসে আল-আমিন মাঝি প্রায়ই ওই ছাত্রীকে নিয়ে বরিশাল ও ঝালকাঠি শহরের বিভিন্ন চাইনিজ রেস্টুরেন্ট এবং তার মহিলা কলেজ সড়কের বাসায় নিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে।

    সর্বশেষ গত ১৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ঝালকাঠি শহরের নোহা গার্ডেন চাইনিজ রেস্টুরেন্টে নিয়ে আল-আমিন মাঝি ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ খবর পেয়ে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা রেস্টুরেন্টে উপস্থিত হলে আল-আমিন মাঝি ওই ছাত্রীকে রেখে সটকে পড়ে।

    এদিকে, ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষক আল-আমিনের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের খবর শহরে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

    খোজ খবর নিয়ে জানা গেছে, এর আগেও আল-আমিন মাঝি একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলে।

    শুধু আল-আমিন মাঝি নয় একই কলেজের আরও ৫/৬ জনের একটি শিক্ষক সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের সাথে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ার অভিযোগ রয়েছে।

    এলাকাবাসীর অভিযোগ, সরকারি মহিলা কলেজের আশপাশে বাসা ভাড়া নিয়ে এরা কথিত মধুকুঞ্জু গড়ে তুলেছেন। অভিযুক্ত শিক্ষকরা তাদের বাইরের বন্ধুদের নিয়ে নিয়মিত কলেজ ক্যাম্পাসে দিনে ও রাতে আড্ডা বসায়। তাদের টার্গেট থাকে ছাত্রী হোস্টেলের দিকে।

    অভিযোগের বিষয়ে আল-আমিন মাঝির বক্তব্য জানার জন্য তার মোবাইল নম্বরে কল দিলে তিনি কল রিসিভ করেননি।

    ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. জাহাঙ্গীর খান বলেন, ওই ছাত্রীর মা আমার কাছে মৌখিকভাবে আল-আমিন মাঝির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিল। তবে জিজ্ঞাসাবাদে এমন অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন তিনি। কলেজে বহিরাগতদের আড্ডা প্রসঙ্গে অধ্যক্ষ বলেন, খোঁজ নিয়ে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    (Visited 9 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *