Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / ব্রেকিং নিউজ / টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সিলেটের নগরপিতা হলেন আরিফুল ।। songbadprotidinbd.com

টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সিলেটের নগরপিতা হলেন আরিফুল ।। songbadprotidinbd.com

  • ১১-০৮-২০১৮
  • image-40257-1533989309 (1)সিলেট প্রতিনিধি: নগরবাসী আগেই জেনেছিলেন পুনরায় সিলেট সিটির মেয়র হতে যাচ্ছেন আরিফুল হক চৌধুরী।  শুধু বাকি ছিল স্থগিত দুই কেন্দ্রে ‘নিয়ম রক্ষার’ নির্বাচন, পূর্ণাঙ্গ ভোটের পরিসংখ্যান আর আনুষ্ঠানিক নির্বাচিত ঘোষণা।  এবার স্থগিত দুই কেন্দ্রে নির্বাচন আর কাঙ্খিত সেই ঘোষণায় কামরানকে ৬ হাজার ২০১ ভোটে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে নগরপিতা হলেন আরিফুল হক চৌধুরী।

    স্থগিত এ দুই কেন্দ্রে মোট ৪ হাজার ৭শত ৮৭টি ভোটের মধ্যে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী পেয়েছেন ২১০২ ভোট।  অন্যদিকে তাঁর নিকটতম আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছেন মাত্র ৫২৭ ভোট।

    স্থগিত এ দুই কেন্দ্রের মধ্যে নগরীর গাজী বুরহানউদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আরিফ পান ১০৫৩ ভোট এবং কামরান পান ৩৫৪ ভোট।  এছাড়া হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আরিফ পান ১০৪৯ ভোট এবং কামরান পান ১৭৩ ভোট।

    পূর্বে ঘোষিত ১৩২ কেন্দ্রের মধ্যে ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট এবং স্থগিত এ দুই কেন্দ্রের নির্বাচনে প্রাপ্ত ভোট মিলে আরিফুল হক পেয়েছেন মোট ৯২ হাজার ৫৯৮ ভোট।  অন্যদিকে বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পূর্বে প্রাপ্ত ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট এবং স্থগিত এ দুই কেন্দ্রের নির্বাচনে প্রাপ্ত ৫২৭ ভোট মিলে তিনি পেয়েছেন মোট ৮৬ হাজার ৩৯৭ ভোট।  ফলে ওই দুই কেন্দ্রের ফলাফল অনুযায়ী বেসরকারি ফলাফলে আরিফুল হক চৌধুরী তাঁর নিকটতম প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ এর চেয়ে ৬ হাজার ২০১ ভোট বেশি পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন।

    এর আগে নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসীল অনুযায়ী গত ৩০ জুলাই দিনভর উৎসব আর উৎকণ্ঠার মধ্য দিয়ে সিসিক নির্বাচনের মোট ১৩৪ কেন্দ্রের মধ্যে ১৩২ কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও অনিয়মের কারণে নগরীর গাজী বুরহানউদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।  ফলে ৪ হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে থাকার পরও আরিফের মেয়র হওয়ার ভাগ্য ঝুলে থাকে স্থগিত এ দুই কেন্দ্রের নির্বাচনের ওপর।

    এদিকে শনিবার (১১ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে ওই দুই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হওয়ার পর বেলা ১০ টা নাগাদ নগরীর গাজী বুরহানউদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলের অভিযোগ পাওয়া গেলেও এর আধঘণ্টা পর দায়িত্বশীল ম্যাজিস্ট্রেটের হস্তক্ষেপে আবার তা দখলমুক্ত হয়।  এরপর থেকেই চলে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ।  তবে একই ভোটকেন্দ্র থেকে জাল ভোটার সন্দেহে ৫ জনকে আটক করা হয়।  এছাড়া হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রেও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণে হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।  অন্যদিকে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে আগে থেকে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন।

    স্থগিত দুই কেন্দ্র ছাড়া বাকি সব কেন্দ্রের সম্মিলিত ভোট গণনায় মেয়র পদে এগিয়ে ছিলেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী।  ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী ১৩২ কেন্দ্রের মধ্যে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছিলেন ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট।

    তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট।  তার চেয়ে ৪ হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন আরিফ।  মেয়র নির্বাচিত হতে আরিফের প্রয়োজন ছিলো মাত্র ৮১ ভোট।

    স্থগিত হওয়া গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটার ছিল ২ হাজার ২২১ জন, আর হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটার ২ হাজার ৫৬৬ জন।  সব মিলিয়ে এই দুই কেন্দ্রে ভোটার চার হাজার ৭৮৭ জন।

    তবে শেষ খবর সকল হিসেব নিকেশ আর সমীকরণ শেষে অনুযায়ী কামরানকে ৬ হাজার ২০১ ভোটে হারিয়ে পুনর্বার নগরপিতা হলেন আরিফুল হক চৌধুরী।

    (Visited 6 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *