Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / ব্রেকিং নিউজ / ওবায়দুল কাদের বিপদে পড়ে দৌড় শুরু করেছেন: মোশাররফ ।। songbadprotidinbd.com

ওবায়দুল কাদের বিপদে পড়ে দৌড় শুরু করেছেন: মোশাররফ ।। songbadprotidinbd.com

  • ২৯-০৭-২০১৮
  • image-39218-1532860148নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিপদে পড়ে দৌড় শুরু করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

    রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী নাগরিক দল আয়োজিত এক প্রতিবাদী নাগরিক সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ মো. ওমর ফারুক পীরসাহেব। ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রমূলক সকল মামলা প্রত্যাহারসহ বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সু-চিকিৎসার দাবি’ শীর্ষক এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

    খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু হতে হলে নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এবং সংসদ ভেঙে দিতে হবে। আর জনগণের যেহুতু নির্বাচনের ওপর আস্থা নেই। তাই নির্বাচনের আগে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দিয়ে দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করতে হলে-এর বাইয়ে আর কোন কথা নেই। এখানে আলাপ-আলোচনা ও টেলিফোনের কোন কথা নেই।

    ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, টেলিফোন করেন, আমাদের মহাসচিব (মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর) বলতে বাধ্য হবেন, আগামী নির্বাচন নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে, সেনা বাহিনীকে নির্বাচনের সময় আনতে হবে। এগুলো মহাসচিব টেলিফোনেও বলবেন। আর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসে যদি আমাদের মহাসচিবের সঙ্গে দেখা করেন…। বুঝতে পারছি, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তো বিপদে আছে। কিভাবে দৌড়াদৌড়ি করছেন! অনেকের বাড়িতে গিয়ে পৌঁছেছেন। বাড়িতেও যদি আসেন, এই বাইয়ে আমাদের মহাসচিবের বলার কিছু নাই।

    একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বেগম জিয়া ছাড়া অংশগ্রহণমূলক হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

    খুলনা ও গাজীপুর নির্বাচনের মডেল আসন্ন তিন সিটি নির্বাচনেও দেখা যাচ্ছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, তিন সিটিতে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। নেতাকর্মীদের কাউকে এলাকায় থাকতে দিচ্ছে না। এমনভাবে গ্রেপ্তার আতঙ্ক ছড়ানো হয়েছে যে, ধানের শীষের প্রচারণা অফিস তালা দিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা পালিয়ে গেয়েছে। এই হচ্ছে, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী চিত্র!

    সিটি নির্বাচনে জনগণের ভোট দেওয়া প্রয়োজন নেই মন্তব্য করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ নিজেদের ভোট দিয়ে নিজেদের বিজয়ী ঘোষণা করবে। এটি হচ্ছে, শেখ হাসিনা নির্বাচনের ব্যাখা।

    অপরদিকে প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক সমাবেশে আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ একটি নির্বাচনী প্রকল্প করেছে। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে, জনগণকে বাইয়ে রেখে ক্ষমতা দখল। গোয়েন্দা সংস্থা ও প্রশাসনের লোকজন এর সহযোগিতা করছে। আর নির্বাচন কমিশন এ প্রকল্পের সভাপতিত্ব করছে।

    বিএনপির এই স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, বিচারিক প্রক্রিয়ায় বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়। বেগম জিয়া মুক্ত হবেন, জাতীয় ঐক্য ও সংগ্রামের মধ্য দিয়ে।

    ‘প্রতিহিংসার বিচারে বন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি’ শীর্ষক এ প্রতিবাদী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের উপদেষ্টা মো. সালমান ওমর রুবেল। এতে বিএনপি নেতা ড. সুকোমল বড়ুয়া, অ্যাডভোকেট আহমদ আযম খান, আব্দুস সালাম আজাদ, শিরিন সুলতানা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

    (Visited 11 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *