Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / জাসাসের বর্ষবরণ উপভোগ করলেন খালেদা

জাসাসের বর্ষবরণ উপভোগ করলেন খালেদা

  • ১৪-০৪-২০১৬
  • বিএনপির অঙ্গসংগঠন জাতীয়তাবাদী সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) বর্ষবরণের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করলেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

    বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ অনুষ্ঠান হয়। দুপুর আড়াইটায় জাসাসের বর্ষবরণের এ অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর খালেদা জিয়ার গাড়িবহর বিকেল সোয়া ৪টার দিকে ভিড় ডিঙিয়ে নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে পৌঁছায়। তবে নিরাপত্তাকর্মীদের তার গাড়িবহর মঞ্চের কাছে নিতে বেগ পেতে হয়।

    বিএনপির চেয়ারপারসন অনুষ্ঠানস্থলে এসে উপস্থিত হলে নেতাকর্মীরা মুহুর্মুহু করতালি ও স্লোগানে স্লোগানে তাদের প্রিয়নেত্রীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। ক্রিম কালারের লাল পাড়ের সুতি শাড়ি পরা খালেদা জিয়াও গাড়ি থেকে নেমে সেখানে সমবেত হাজার হাজার নেতাকর্মীকে হাত নেড়ে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানান।

    এরপর খালেদা জিয়া এসে কার্যালয়ের নিচতলায় রাখা প্রধান অতিথির আসন অলঙ্কৃত করেন। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছিলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ডা. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান; ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, আব্দুল্লাহ আল নোমান; বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন; সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, এমরান সালেহ প্রিন্স, অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দপ্তর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি প্রমুখ।

    বিএনপির চেয়ারপারসন আসার পর প্রথমে জাতীয় সঙ্গীত, তারপর দলীয় সঙ্গীত ও বৈশাখের গান (এসো হে বৈশাখ, এসো এসো..) পরিবেশন করা হয়।

    এরপর জাসাস শিল্পীদের কণ্ঠে একে একে ‘ওকি গাড়িয়াল ভাই, খাঁচার ভেতর অচিন পাখি কেমনে আসে যায়, যে জন প্রেমের ভাব জানে না তার সাথে নাই লেনাদেনা’সহ বেশ কয়েকটি গান পরিবেশিত হয়। খালেদা জিয়া এসব গান অত্যন্ত আনন্দের সাথে উপভোগ করেন। জাসাসের শিল্পীরা যখন এসব গান গাইছিলেন তখন অন্য শ্রোতাদের সঙ্গে বিএনপির চেয়ারপারসনও মাথা নাড়িয়ে তাদের উৎসাহ দিচ্ছিলেন। বেগম জিয়াকে তখন হাস্যোজ্জ্বল দেখাচ্ছিল।

    জাসাসের বর্ষবরণের এ অনুষ্ঠানে বেবী নাজনীনের পাশাপাশি হাসান চৌধুরী, পিয়াল হাসান, মনির খান, পলি শারমীন ‍শুভ্র আসাদ, শাহজদি কোহিনুর পাঁপড়ি, মুন, রেখাসহ সংগঠনের শিল্পীরা ভাটিয়ালী, দেশাত্মবোধক ও মুক্তিযুদ্ধের গান পরিবেশন করেন।

    জাসাসের বর্ষবরণের অনুষ্ঠান উপভোগ শেষে দেয়া শুভেচ্ছা বক্তব্যে খালেদা জিয়া বলেন, ‘জাসাসের বর্ষবরণের এ অনুষ্ঠান অত্যন্ত সুন্দর ও সুষ্ঠু হয়েছে। এজন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি গানগুলো অত্যন্ত আনন্দের সাথে উপভোগ করেছি।’

    এদিকে, বিএনপি চেয়ারপারসনের আগমন উপলক্ষে দুপুরের আগে থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা নয়াপল্টনে আসতে শুরু করেন। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে জনস্রোত। এক পর্যায়ে কার্যালয়ের সামনের সড়ক নেতা-কর্মীদের সমাবেশে পরিণত হয়।

    জাসাস সভাপতি এম এ মালেকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কণ্ঠশিল্পী মনির খানের সঞ্চালনায় এতে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, ছাত্রদল সভাপতি রাজীব আহসান, সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান, সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাবুল, সাবেক সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক আমিরুজ্জামান খান শিমুল, জাসাস যুগ্ম-সম্পাদক শায়রুল কবির খান প্রমুখ।

    (Visited 7 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *