Templates by BIGtheme NET
Home / জাতীয় / যুবলীগ নেতাসহ ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩ ।। songbadprotidinbd.com

যুবলীগ নেতাসহ ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩ ।। songbadprotidinbd.com

  • ১৫-০৭-২০১৮
  • download (1)সংবাদ প্রতিদিন বিডি ডেস্কঃ  চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাতক্ষীরা ও ময়মনসিংহে তিনজন নিহত হয়েছেন। শনিবার (১৪ জুলাই) দিবাগত রাতে সাতক্ষীরা সদরে ‘মাদকসহ’ গ্রেপ্তার হওয়ার পর পুলিশের অভিযানের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন ইউনিয়ন যুবলীগ নেতাসহ দুইজন। একই সময় ময়মনসিংহের ভালুকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন মাদক মামলার এক আসামি।

    জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

    সাতক্ষীরা
    সাতক্ষীরায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আব্দুল কালাম আজাদ ও দেলোয়ার হোসেন নামে দুই মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পুলিশের পাঁচ সদস্য। শনিবার (১৪ জুলাই)  দিবাগত রাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার বাশদাহ ইউনিয়নের কয়ার বিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

    সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহমেদ জানান, শনিবার বিকেলে বাশদাহ বাজার এলাকা থেকে দুই কেজি গাঁজা ও ২০ বোতল ফেনসিডিলসহ কালাম ও দেলোয়ারকে আটক করে ডিবি পুলিশের সদস্যরা। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে রাতেই সীমান্ত দিয়ে মাদকের বড় একটি চালান দেশে প্রবেশ করছে।

    সেই তথ্যের ভিত্তিতে, তাদের সঙ্গে নিয়ে রাত ৩টায় সীমান্তবর্তী বাশদাহ ইউনিয়নের কয়ার বিলে অভিযানে যায় সদর থানা ও ডিবি পুলিশের একটি দল। সেখানে পৌঁছানো মাত্র পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে মাদক চোরাকারবারীরা। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে কালাম ও দেলোয়ার দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় গোলাগুলির মধ্যে পড়ে যায়। এসময় মাদক চোরাকারবারীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে কালাম ও দোলোয়ারকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাৎক্ষণিক উদ্ধার করে তাদের সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

    নিহত কালাম জেলার কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছি ইউনিয়নে আবুল কাসেমের ছেলে ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এবং দেলোয়ার বাশদাহ গ্রামের বাসিন্দা।

    এদিকে অভিযানে সদর থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশের পাঁচ সদস্য সামান্য আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলেও জানান ওসি মারুফ আহমেদ।

    ময়মনসিংহ
    ময়মনসিংহের ভালুকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। শনিবার (১৪ জুলাই)  দিবাগত রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মুরাদ আকন্দ (৩০) ভালুকা উপজেলার বগাজান গ্রামের শাহজাহান আকন্দের ছেলে। তার বিরুদ্ধে মাদক চোরাচালানসহ বিভিন্ন অভিযোগে চারটি মামলা রয়েছে।

    ভালুকা থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার জানান, উপজেলার উথুরা গ্রামে মাদকের চালানের ভাগ-ভাটোয়ারা চলছে খবর পেয়ে শনিবার রাত ২টার দিকে সেখানে অভিযানে যায় পুলিশ।

    এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি করে। পুলিশও তখন পাল্টা গুলি ছুড়লে মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটে। পরে সেখানে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

    ওসি আরো জানান, এ অভিযানে দুই পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

    প্রসঙ্গত, গত দুই মাসে মাদকবিরোধী অভিযানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে।

    (Visited 14 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *