Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / সারাবাংলা / চট্টগ্রাম / ভারী বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতায় নাকাল বন্দর নগরী চট্টগ্রাম ।। songbadprotidinbd.com

ভারী বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতায় নাকাল বন্দর নগরী চট্টগ্রাম ।। songbadprotidinbd.com

  • ০৩-০৭-২০১৮
  • boishakhi_1530611760চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : ভারী বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতায় নাকাল বন্দর নগরী চট্টগ্রামের বাসিন্দারা। নগরীর চকবাজার, হালিশহরসহ বেশ কিছু এলাকা ডুবে আছে হাটু পানিতে। জলাবদ্ধতা নিরসনে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকে দায়ী করছে সাধারণ মানুষ। এদিকে, বৃষ্টির পানিতে সড়ক ডুবে থাকায় চট্টগ্রামের সাথে রাঙামাটি ও বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। অন্যদিকে, পাহাড়ি ঢল ও বৃষ্টিপাতের কারণে সুনামগঞ্জের ষোলঘর পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৫৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

    সোমবার রাত থেকে সকাল পর্যন্ত চট্টগ্রামে টানা বৃষ্টি হয়। বৃষ্টি আর জোয়ারের পানিতে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ এক্সপ্রেস রোড, সিডিএ আবাসিক এলাকা, চকবাজার, হালিশহরসহ বেশ কিছু নিচু এলাকা ডুবে আছে হাঁটু পানিতে।

    জমে থাকা পানির কারণে বিভিন্ন সড়কে নতুন করে খানাখন্দের সৃষ্টি হচ্ছে। নগরীর চকবাজার এলাকার লোকজন পড়েছে সীমাহীন দুর্ভোগে। ঘটছে দুর্ঘটনা।

    চট্টগ্রাম আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বেলা ১২টা পর্যন্ত নগরীতে ২৫২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

    এদিকে, বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের রাউজান এলাকার বেশ কিছু অংশ। সকাল থেকে ওই সড়কে কোন যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে চট্টগ্রাম থেকে রাঙামাটির যোগাযোগ। এছাড়া ফটিকছড়ি, পটিয়াসহ বিভিন্ন উপজেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্ধ হয়ে গেছে বান্দরবানের সাথে চট্টগ্রাম রাঙামাটির সড়ক যোগাযোগও।

    অন্যদিকে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও বৃষ্টির কারণে সুনামগঞ্জের ষোলঘর পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বিপদ সীমার ৫৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি ঢুকে পড়ছে শহরে।

    বৈরি আবহাওয়ার কারণে নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সর্তকতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

    (Visited 17 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *