Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / সারাবাংলা / ঢাকা / মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১ লাখ টাকা করার দাবি কাদের সিদ্দিকীর ।। সংবাদ প্রতিদিন বিডি

মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১ লাখ টাকা করার দাবি কাদের সিদ্দিকীর ।। সংবাদ প্রতিদিন বিডি

  • ১৫-০৫-২০১৮
  • download (2)মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১ লাখ টাকা করার দাবি জানিয়েছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী (বীর উত্তম)। টাঙ্গাইলের সখীপুরে কাদেরিয়া বাহিনীর সহকারী বেসামরিক প্রধান (বীরপ্রতীক) হামিদুল হক ও মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম সিদ্দিকীর স্মরণসভায় সোমবার রাতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

    কাদের সিদ্দিকী বলেন, যেদিন অস্ত্র জমা দিয়েছিলাম, সেদিন বঙ্গবন্ধুর কাঁধে কিংবা হাতে জমা দিতে পারতাম। কিন্তু সম্মান করে তার পায়ের নিচে বিছিয়ে দিয়েছিলাম। অস্ত্র কোনো শক্তি নয়, মেধাই শক্তি। তাকে পিতার মতো মনে করে যুদ্ধ করেছিলাম। সেই পিতাকে যখন খুনিরা হত্যা করে আর যাদের হাতে অস্ত্র ছিল তারা প্রতিবাদ করেনি; আমিই প্রতিবাদ করেছি।

    তিনি বলেন, ৫ বছর ধরে আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে দলে টানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এখনো বলার সময় হয়নি, ভেবে দেখার বিষয়। তবে চামড়া ছুলা মতিয়া চৌধুরী, হাসানুল হক ইনু আর ২৮৩ খুনের মামলার আসামি শাজাহান খানের সঙ্গে আমার রাজনীতি করা চলে না।

    কাদের সিদ্দিকী বলেন, সারাদেশে মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ সম্মান করা হচ্ছে না। অনেকেই প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হয়েও স্বাধীনতার ৪৭ বছরেও তালিকায় নাম উঠাতে পারেননি। তাদের নিয়ে প্রশাসন ছিনিমিনি খেললে ছাড় দেয়া হবে না।

    তিনি বলেন, সখীপুরে একমাত্র খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা বীরপ্রতীক হামিদুল হক। ’৭১ সালে হামিদুল হক ও আবদুস সালাম সিদ্দিকী মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রেখেছেন। আবদুস সালাম সিদ্দিকী প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হয়েও তালিকায় তার নাম না উঠায় সাংঘাতিক আঘাত পেয়েছেন।

    কাদের সিদ্দিকী আরও বলেন, আমি যেমন প্রধানমন্ত্রীর কল্যাণ চাই, ঠিক তেমনি খালেদা জিয়ারও চাই, দেশ ও মুক্তিযোদ্ধাদেরও কল্যাণ চাই। মুক্তিযুদ্ধ ছেলেখেলা ছিল না। আমিই প্রথম মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতার দাবি করেছিলাম। ২০০ থেকে এখন তারা মাসিক ১০ হাজার টাকা পাচ্ছেন। আমি বেঁচে থেকে দেখে যেতে চাই এবং সরকারের দাবি করছি মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা ১ লাখ টাকা করতে হবে।

    মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম সরকারের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- কাদেরিয়া বাহিনীর বেসামরিক প্রধান আবু মোহাম্মদ এনায়েত করিম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা (বীর প্রতীক), উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত শিকদার, পৌরমেয়র আবু হানিফ আজাদ ও ইউএনও মৌসুমী সরকার রাখী প্রমুখ।

    (Visited 9 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *