Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / ব্রেকিং নিউজ / খালেদা জিয়ার মুক্তি ও শেখ হাসিনার পতন একসঙ্গে হবে: রিজভী ।। songbadprotidinbd.com

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও শেখ হাসিনার পতন একসঙ্গে হবে: রিজভী ।। songbadprotidinbd.com

  • ১৩-০৪-২০১৮
  • 1523607490সংবাদ প্রতিদিন বিডি প্রতিবেদকঃ  কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পতন একসঙ্গে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

    রিজভী আহমেদ বলেন, আর বেশি সময় নেই, আপনাদের সুস্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিতে চাই-এই মূহূর্তে সর্বপ্রথম দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। আর তা না হলে জনগণ আর অপেক্ষা করবে না। নইলে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং শেখ হাসিনার পতন একসাথে সংঘটিত হবে। বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে এবং মানুষের ভোটের অধিকার ফিরে পেতে যে আন্দোলন চলছে সেই আন্দোলনের বিজয় অতি সন্নিকটে। চক্রান্ত করে বন্দুকের জোরে মানুষের অধিকারকে দমিয়ে রাখা যাবে না।

    রিজভী বলেন, গতকাল কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে দরিদ্র ও ক্ষুধার্ত মানুষ সরকার ঘোষিত ১০ টাকা কেজির চাল নিতে গেলে যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলার শিকার হয়। ছাত্রলীগ-যুবলীগ ১০ টাকা কেজির চাল কালোবাজারে বিক্রির ঘটনায় নিজেদের ভাগাভাগি নিয়ে দফায় দফায় গুলিবর্ষণ, আক্রমন ও সংঘর্ষ চলে। এদিকে বিক্ষুব্ধ জনতা আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ মনোনীত ডিলারদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করলে একপর্যায়ে এই ক্ষুধার্ত মানুষগুলোর ওপর গুলি চালায় তারা।
    ‘আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই দেশে দুর্ভিক্ষ নামে। ৭৪’র দুর্ভিক্ষের কথা মানুষ এখনও ভুলে যায়নি। কুড়িগ্রামের ঘটনা ৭৪’র দুর্ভিক্ষেরই আলামত। বিশ্বের কোথাও ক্ষুধার্ত মানুষকে নিয়ে এতো নির্মমতা নজীরবিহীন। এরা এত নিষ্ঠুর যে ক্ষধার্ত মানুষকে গুলি করতেও দ্বিধা করে না।’

    গতকাল প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে বলেছেন-জনগণ ভোট দিলে আগামীতে আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় আসবে। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে রিজভী বলেন, আপনি কী জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে এখন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন ? আপনি তো নিজের ভোটও নিজেকে দেননি। দেশ পরিচালনা করতে আপনাদের তো জনগণের ভোটের প্রয়োজন হয় না। আপনাদের মুখে জনগণের নিকট ভোট চাওয়ার কথা রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয়।

    (Visited 13 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *