Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / সারাবাংলা / রংপুর / লালমনিরহাটের ঐতিহ্যবাহী বউ জামাই মেলায় উপচে পড়া ভিড় ।। songbadprotidinbd.com

লালমনিরহাটের ঐতিহ্যবাহী বউ জামাই মেলায় উপচে পড়া ভিড় ।। songbadprotidinbd.com

  • ২৫-১২-২০১৭
  • 3-bg-2017122212263520171223180628শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের বড়বাড়িতে দ্বিতীয়বারের মতো শুরু হয়েছে ৫দিনব্যাপী ব্যাতিক্রমী বউ-জামাই মেলা। জেলার প্রথম এই ব্যতিক্রমী মেলায় জেলার বিভিন্ন প্রান্ত ও আশেপাশের জেলা থেকে দর্শনার্থীরা ভিড় করছে।

    মেলা উপলক্ষে সদরের ৪টি ইউনিয়নের প্রতিটি বাড়িতে এসেছে মেয়ে ও জামাই। উত্তরাঞ্চলের সর্ববৃহৎ এই ব্যতিক্রমী মেলায় রংপুর অঞ্চলের হারানো সব ঐতিহ্য স্থান পেয়েছে। সকলের জন্য উন্মুক্ত এই মেলায় চলবে জারি-সারি-লোকসংগীত ও ভাওয়াইয়া গান। মেলায় শতাধিক মাছের আড়ৎ ও পিঠা বিক্রির স্টল রয়েছে।

    জেলার সদর উপজেলার বড়বাড়ি এলাকার শহীদ আবুল কাশেম মহাবিদ্যালয় মাঠে শুক্রবার সকাল ১০টায় এ মেলার উদ্বোধন করেন।

    বউ-জামাই মেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও সাবেক উপমন্ত্রী অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু। রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের ১৬টি জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে মৎস্য খামারী ও ব্যবসায়ীরা এ মেলায় অংশ নেয়।

    বিশাল বিশাল সামুদ্রীক বিভিন্ন প্রকারের মাছ এ প্রজম্মকে দেখানো এবং পরিচিতির জন্য এ মেলার মুল উদ্দেশ্য বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

    শুক্রবার থেকে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত এ ব্যাতিক্রমী মেলা চলবে লালমনিরহাট সদর উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের ওই মহাবিদ্যালয় মাঠে।

    এ মেলা উদ্বোধনের পর পরই এ অঞ্চলের মানুষ সাজিয়ে গুজিয়ে প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে তাদের সন্তানদের নিয়ে এসেছে এ মেলায় মাছ ও পিঠা  কিনতে।

    ক্রেতারা বলছেন, অনেক আশা নিয়ে এসেছি এ মেলায় পিঠা ও মাছ কিনতে, কিন্তু বিক্রেতারা মাছে ও পিঠার দাম হাকাচ্ছে বেশি। বিক্রেতারা বলছেন,  সামুদ্রীক মাছগুলো আড়তেই চড়া দাম। এ কারণে পরিবহন খরচ নিয়ে এই মাছগুলোর দাম প্রতি কেজি দেড় হাজার থেকে দু হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি না করলে লাভ হবে না।

    আর পিঠা বিক্রেতারা বলছেন, সব জিনিসেরই দাম বেশি তাই পিঠার দামতো একটু বেশি হবেই। তবে দাম যাই হোক, পূর্ব পুরুষের ঐতিহ্য ধরে রাখার জন্য মেলায় আসা বউ ও জামাই পছন্দ মতো মাছ ও পিঠা কিনে শ্বশুর বাড়ি যাচ্ছে।

    এ ব্যাতিক্রমী মৎস্য ও পিঠা মেলায় স্টলগুলো বর্ণাঢ্য আয়োজনে সাজানো হয়েছে। গ্রাম বাংলার হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে এ ব্যাতিক্রমী মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

    উদ্বোধনী অনূষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলা, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম,সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন লিমন, বড়বাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইয়াছিন আলী মোল্লা প্রমুখ।

    (Visited 26 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *