Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / অন্যান্য / পরকিয়া করা দোষের কিছু ন​য়, প্রতিটা প্রেম, প্রতিটা সম্পর্কই তো বাস্তবতা !-সাদিয়া নাসরিন।। Songbad Protidin BD

পরকিয়া করা দোষের কিছু ন​য়, প্রতিটা প্রেম, প্রতিটা সম্পর্কই তো বাস্তবতা !-সাদিয়া নাসরিন।। Songbad Protidin BD

  • ১৭-১০-২০১৭
  • aa9920d379977b39e9f958ddda3f1924-5848fc105230e“কিয়া” যদি আমি করি সেটা “পরকিয়া” হয় কেমনে?
    রুমানা মঞ্জুরের কথা মনে আছে? স্বামীর হাতে নির্মমভাবে আহত হয়ে দৃষ্টি হারানো একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, আমরা যাঁর জীবন্ত ময়নাতদন্ত করেছি। আমাদের আশেপাশের পুরুষতন্ত্র (শাড়ি এবং শার্ট পরা দুদলই) তাঁকে ব্যবচ্ছেদ করেছে।

    রুমানা “পরকিয়া” করতো, তাই তাকে মেরেছে। বেশ করেছে। কীসের থিসিস, কীসের স্টাডি? ওসব কিছু না, সে আসলে বিদেশে গিয়ে লিভ টুগেদার করে। অতএব ধরো, মারো, চোখ তুলে নাও, নাক কামড়ে দাও, সব জাস্টিফাইড। কারণ সে পরকিয়া করে। পরকিয়া এমন এক টেস্ট মেকার, তুমি যা খুশি স্পাইসি রাঁধতে পারো…ইয়াম্মি!!

    এইতো মাত্র কিছুদিন আগের ঘটনা…রামপুরা, বনশ্রীর মাহফুজা। নিজের কিশোরী মেয়েকে নিজের হাতে খুন করার দায় মাথা পেতে নিয়েছে। ঘটনার কোন ক্লু বের করতে না পেরে আমাদের জ্ঞানি-গুণীজন সিদ্ধান্তে চলে আসলো পরকিয়ার কারণে সন্তানকে হত্যা করেছে।

    সাংবাদিক রুনি মরেও বাঁচলো না পরকিয়ার কষ্টের আগুন থেকে। অবশেষে “মিতু”। হিজাব-টিজাব দিয়াও নিজেরে বাঁচাইতে পারলো না মাইয়াটা। মৃত্যুযন্ত্রণা যে বোরকা খুলতে পারে নাই, সেই “পরকিয়া” ওর গায়ের বোরকা খুইলা দিল, পাবলিকও খাইল।

    তনু, যার সাথে নাকি মরার আগে “সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্স” হয়েছিল, তার ফোন ট্র্যাক করে দেখা হয়েছে যে সে নাকি ২১টা সিম ব্যাবহার করতো। আল্লাহ বাঁচাইসে তনু বিবাহিত ছিল না, থাকলে তো এতো কষ্ট করতে হতো না। এক শব্দে কাজ শেষ করা যেত।

    ময়না তদন্ত কি আর খালি মৃতদেহের হয় !
    কিছুদিন আগে আমার স্কুল জীবনের এক বন্ধু আত্মহত্যা করেছে। না, স্বামী পরকিয়ার অপবাদ দিয়েছে সেই অপমানে নয়। স্বামীর দেয়া সেই অপবাদ ওর নিজের মা-বাবা বিশ্বাস করেছে বলে। আরে বোকা মেয়ে, এই একটা বিষয়ই তো মানুষ ধর্মের চাইতেও বেশি বিশ্বাসে মেনে নেয়। কারণ তুমি মেয়ে। তোমার কোন সমস্যা না থাকলে তোমার স্বামী কেন তোমাকে অবিশ্বাস করবে?

    শোন মেয়ে, এই পৃথিবীতে সবচেয়ে সস্তায় নিলামে বিক্রি হয় যে বস্তু তাহলো তোমার “চরিত্র”। তোমাকে কোনভাবেই কাবু করা যাচ্ছে না? একটা শব্দ যথেষ্ট। এই একটা শব্দে তুমি মরবে মেয়ে। বেঁচে থাকলেও মরবে, মরে গেলেও মরবে।
    তুমি স্বামীকে পাত্তা-টাত্তা কম দিচ্ছ ইদানিং, স্বামীর দেখভাল ঠিকঠাক মতো হচ্ছে না? আহ্লাদ-ন্যাকামি কম করছো? সারাদিন ফেসবুকে কী করো? এতো কী কথা বলো ফোনে সারাদিন? মেঘলা বিকেলে একা বারান্দায় বসে থাকতে ইচ্ছে করছে? দাম্পত্যে হাঁফিয়ে উঠেছো মেয়ে? কিছু সময়ের জন্য আলাদা থাকতে চাও? একলা দুপুরে সমুদ্রে ঝিনুক কুড়াতে মন চায় সেদিনের মতো? কেন? তোমার সমস্যা কি? নিশ্চয়ই “কেউ” আছে। সেই “কেউ”র অস্তিত্ব বাস্তবে আদৌ থাক বা না থাক তোমার জীবন কিন্তু বিভীষিকাময় করে তুলবে তোমার আশেপাশের মানুষেরা। এক বাক্যে প্রতিষ্ঠিত করবে তুমি পরকিয়া করছো।

    পরকিয়া এমন এক শব্দ, মুখ থেকে বাইর হইতে দেরি, এস্টাব্লিশ করতে দেরি নাই। এই শব্দের এমনই মাজেজা, পুরুষের দিকে আঙ্গুল যদি যায়ও, কেমনে জানি পর্দার অন্তরালে থাকা মাইয়াটার ঘাড়েই দায়টা আপনাতেই চলে যায়। তোমার স্বামী পরকিয়া করে, দোষ তোমার। আর তুমি পরকিয়া করো !!! ওরে বাবা, তাইলে তো লারে লাপ্পা !!!

    অনেক হয়েছে। যথেষ্ট। এবার থামাও মেয়ে। ঘুরে দাঁড়াও। ওরা এমনিতে থামবে না। ওদের থামাতে হবে। চরিত্রের জুজুর ভয় আর কতো? “পরকিয়া” মানে কি? পরের সাথে যে কিয়া? আরে ! আমি যদি কারো সাথে “কিয়া” করি, সে কি আর “পর” থাকে? তাহলে পরকিয়া হয় কেমনে? সে তো “স্বকিয়া”। প্রতিটা প্রেম, প্রতিটা সম্পর্কই তো বাস্তবতা। সম্পর্কে অতীত বলে তো কিছু নেই। যদি কোন সম্পর্কে জড়িয়ে যাও জীবনের যে কোন প্রান্তে, সে সম্পর্ক স্বীকার করে নেয়ার সাহস অর্জন করো, মেয়ে।

    ঘুরে দাঁড়াও। চিৎকার করে বলো, আমি “স্বকিয়া” করি। কোন সমস্যা? মনে রেখ, রাম-রহিম সবাই তোমাকে সীতা হিসেবেই চায়। অতএব, তোমাকেই ঠিক করতে হবে তুমি আর কতযুগ অগ্নিপরীক্ষা দিবে একটা চারিত্রিক সনদের জন্য। অতএব চ্যালেঞ্জ করো।

    জাগো, মেয়ে, বাঁচো। যেমন খুশি তেমন বাঁচো। তুমুল বাঁচো।

    সুত্র বাংলা মেইল ৭১

    সংবাদ প্রতিদিন বিডি/ আলম খান 

    (Visited 38 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *