Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার আহ্বান ৪০ দেশের কূটনীতিকদের – Songbad Protidin BD

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার আহ্বান ৪০ দেশের কূটনীতিকদের – Songbad Protidin BD

  • ১৩-০৯-২০১৭
  • image-49577কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ সরেজমিনে শরণার্থী রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতে দেখে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ৪০টি দেশের কূনীতিকদের প্রতিনিধি দল। তারা মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রোহিঙ্গাদের সেদেশে ফিরিয়ে নিতে।

    বুধবার কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে কূটনীতিকরা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন।

    সাংবাদিকদের সামনে এক সংক্ষিপ্ত ব্রিফিংয়ে তারা বলেন, একসঙ্গে এত মানুষকে আশ্রয় দেয়ার জন্য সত্যিই বাংলাদেশ প্রশংসার দাবি রাখে। আমরা আন্তরিকভাবে এই পরিস্থিতি আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে তুলে ধরবো। মিয়ানমার সরকারের প্রতি অনুরোধ জানাবো, এই হামলা বন্ধ করে তারা যেন স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনে ও রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়। রোহিঙ্গাদের এই পরিস্থিতিতে আমরা উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

    ব্রিফিংয়ে ব্রিটেন, চীন ও ভারতের কূটনীতিকরা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এদিন বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কুতুপালং নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্পে পৌঁছান বিদেশি কূটনীতিকরা। এরপর তারা ক্যাম্পের বিভিন্ন ব্লক ঘুরে দেখেন এবং রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের বর্ণনা শোনেন।

    এর আগে বুধবার বেলা ১১টার দিকে ৪০ দেশের রাষ্ট্রদূত, ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিদল কক্সবাজার বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেন। এসময় তাদের অভ্যর্থনা জানান, কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল। পরে সড়ক পথে তারা উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আসেন।

    এসময় বাংলাদেশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মোহাম্মদ আলী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক ও আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

    প্রতিনিধিদলটি বিকেলে ঢাকায় ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে সাংবাদিকদের আরো প্রতিক্রিয়া জানাবেন বলে জানা গেছে।

    গত ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর হামলা শুরু হলে দলে দলে মানুষ বাংলাদেশে আসতে শুরু করে। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, মঙ্গলবার পর্যন্ত অন্তত তিন লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এদের অধিকাংশই নারী ও শিশু। সহায়-সম্বলহীন এই মানুষগুলো মানবেতর জীবন যাপন করছে।

    (Visited 28 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *