Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / খেলাধুলা / আক্ষেপ নিয়েই ইংল্যান্ডের জয়

আক্ষেপ নিয়েই ইংল্যান্ডের জয়

  • ০৬-০২-২০১৬
  • 20jhhhডেস্ক: টেস্টে এক নাম্বার দল হয়েও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ধুঁকছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। চার ম্যাচের সিরিজে স্বাগতিকরা ইংল্যান্ডের কাছে পরাজিত হয় ২-১ ব্যবধানে। আমলা-ভিলিয়ার্সদের সেই ধুঁকধুঁকানি চলতে থাকে ওয়ানডে সিরিজেও। যেন চলছে অবিরত। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ইংলিশদের কাছে বৃষ্টি আইনে ৩৯ রানে হেরেছিল দ. আফ্রিকা।

    সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সমতায় ফেরার দারুণ এক সুযোগ এসেছিল প্রোটিয়াদের সামনে। সমতায় ফেরা তো দূরের কথা, উল্টো এই ম্যাচেও স্বাগতিকদের হলো একই পরিণতি। শনিবার পোর্ট এলিজাবেথে ইংল্যান্ডের কাছে ৫ উইকেটের ব্যবধানে হেরেছে ডি ভিলিয়ার্সের দল। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ল দ. আফ্রিকা।

    অপরদিকে জিতেও ম্যাচটিতে আক্ষেপ থাকছে ইংল্যান্ডের। মাত্র ১ রানের জন্য সেঞ্চুরি করতে পারেননি তাদের ওপেনার অ্যালেক্স হেলস। ২৬৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে হেলস আউট হন ব্যক্তিগত ৯৯ রানে। তাকে শতকবঞ্চিত করেন প্রোটিয়া পেসার কাইল অ্যাবোট। হেলসের ১২৪ বলে ইনিংসে ছিল ৮টি চারের মার।

    এছাড়া ইংল্যান্ডের আক্ষেপ রয়েছে জস বাটলারের জন্যও। দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেও মাত্র ২ রানের জন্য বাটলার পারেননি হাফ সেঞ্চুরি করতে। মাত্র ২৮ বলে চারটি চার ও তিনটি ছক্কায় ঝড়ো ইনিংস খেলে ইংল্যান্ডকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন তিনি। জো রুটের ৩৮, ইয়ান মরগানের ২৯ ও মঈন আলীর অপরাজিত ২১ রানও ইংলিশদের জয় পেতে সহায়তা করে। ৫৮ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়ে প্রোটিয়াদের সেরা বোলার কাইল অ্যাবোট। ২টি উইকেট দখলে নেন মরনে মরকেল।

    এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৬২ রান করে দ. আফ্রিকা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৩ রান করেন অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৭ রান আসে জেপি ডুমিনির ব্যাট থেকে। ৪৬ রান করেন ফাফ ডু প্লেসিস। ৫০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সেরা বোলার রিস টপলি। ২ উইকেট নেন বেন স্টোকস।

    ৯৯ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলার সুবাদে ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ইংল্যান্ডের অ্যালেক্স হেলস।

    (Visited 15 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *