Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / লাইফস্টাইল / আজই সতর্ক হোন ‘পারফিউম’ ব্যবহারে – Songbad Protidin BD

আজই সতর্ক হোন ‘পারফিউম’ ব্যবহারে – Songbad Protidin BD

  • ০১-০৭-২০১৭
  • image-40511সংবাদ প্রতিদিন বিডি ডেস্ক: অফিস, কোন অনুষ্ঠান কিংবা প্রিয়জনের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়ার সময় পরিপাটি সাজগোজের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশই হলো পারফিউম বা সুগন্ধি। পারফিউম শরীরে মাখার একটাই কারণ, যাতে আপনার দেহ থেকে সুগন্ধ বেড়িয়ে আসে। তবে পারফিউমের এই নিয়মিত ব্যবহার কিন্তু আমাদের জন্য বিপদ ডেকে আনে। সম্প্রতি এমনটিই বলছেন গবেষকরা।

    গবেষকদের মতে, লিপ গ্লস থেকে শুরু করে, ডিটারজেন্ট, পারফিউমসহ আরো বেশ কিছু দ্রব্য স্টাইরিন উৎপন্ন করে। এমনিতে হয়তো আলাদা আলাদাভাবে এরা খুব বেশি শক্তিশালী নয়। তবে একবার যদি এরা অনেকে একসঙ্গে মিলিত হয় তাহলে ঠিক কতটা বেশি শক্তিশালী হয়ে পড়তে পারে সেটা সহজেই অনুমেয়।

    বেশ কিছু সুগন্ধীকে নিয়ে পরীক্ষা চালানোর পর গবেষকরা বলেন, বেশিরভাগ নামি-দামি সুগন্ধীর উপাদানের তালিকাতেই এর ভেতরে ব্যবহৃত ক্ষতিকারক উপাদানগুলোর নাম থাকে না। ফলে সেগুলো সম্পর্কে জানতে পারে না ব্যবহারকারীরা। এতে করে খুব অল্প পরিমাণে হলেও ধীরে ধীরে শুক্রাণু নষ্ট হওয়া, হরমোনের সমস্যা হওয়া থেকে শুরু হয়ে সৃষ্টি হয় ক্যান্সার নামক মারাত্মক ব্যাধি!

    তাহলে কি আর সুগন্ধি ব্যবহারই করা যাবে না? অবশ্যই করবেন। এক্ষেত্রে গবেষকরা বলেন, ব্যবহারের আগে সুগন্ধীর প্রকৃতি আর লেবেলের দিকে ভালোমতন নজর দিয়ে তবেই সেটা ব্যবহার করুন। তা না হলে স্বাস্থ্যের ক্ষতি এড়াতে পারবেন না।

    গবেষকরা বলেন, কেনার সময় ক্ষতি এড়াতে পারফিউমটি স্প্রে করে দেখে নেয়া উচিত তা আপনার ত্বকের সঙ্গে মানানসই কিনা। বিবেচনায় রাখা উচিত আপনার ত্বকের ধরনের দিকটাও। সাধারণত শুষ্ক ত্বকে পারফিউম দ্রুত মিলিয়ে যায়। তাই পারফিউমের স্থায়িত্ব ধরে রাখতে ত্বকের আর্দ্রতার প্রতি যত্নশীল হওয়া দরকার। আবার অনেকের পারফিউমে অ্যালার্জি থাকে তাই কেনার আগেই এগুলো দেখে নিন।

    ❏ কীভাবে ব্যবহার করবেন পারফিউম: কিছু পারফিউম আছে যা শরীরে মাখার কিছুক্ষণের মধ্যেই এর গন্ধ উবে যায়। এক্ষেত্রে সকলেই দোষ দেন পারফিউমকেই। অনেকেই আবার মনে করেন দামি পারফিউম হলেই বোধ হয় ঘ্রাণ বেশিক্ষণ থাকে। আসলে এই কথার কোনো ভিত্তি নেই। দামি পারফিউমের সঙ্গে দেহে সুগন্ধ ধরে রাখার তেমন কোনো সম্পর্ক নেই। আসলে শরীরে গন্ধ টিকিয়ে রাখা সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনি কিভাবে পারফিউম ব্যবহার করলেন তার উপর। একটু কৌশল করে পারফিউম ব্যবহারে দেখবেন, দীর্ঘক্ষণ সুগন্ধে ঘিরে থাকবেন আপনিও।

    ❏ পারফিউমের উপকরণ দেখে কিনুন: পারফিউমের সুঘ্রাণ অনেকাংশে ধরে রাখে পারফিউমে ব্যবহৃত বিশেষ ধরণের তেল। এক্ষেত্রে পারফিউম এক্সপার্টরা জানান, নিজের পছন্দের পারফিউমের বোতলটি হাতে নিয়ে দেখুন। যদি এর উপকরণে তেলের মাত্রা বেশি থেকে থাকে তাহলে মাত্র ২/১ স্প্রেতেই আপনার দেহে সুগন্ধ থাকবে সারাদিন। আর যদি পারফিউমে পানি ও অ্যালকোহলের মাত্রা বেশি থাকে তাহলে কিছুক্ষণ পরই এর সুঘ্রাণ উবে যাবে।

    ❏ পারফেক্ট পারফিউম চেনার উপায়: পারফিউমের গায়ে ‘eau de parfum’ লেখা দেখে কিনুন এবং ‘eau de toilette’ লেখা পারফিউম এড়িয়ে চলুন।

    ❏ চুলে ও কাপড়ে পারফিউমের ব্যবহার: পারফিউমের সুঘ্রাণ অনেকটা সময় আপনার দেহে থাকবে যদি আপনি পারফিউম সঠিকভাবে ব্যবহার করেন। চুল এবং কাপড়ে পারফিউম ব্যবহার করলে অনেকটা সময় পারফিউমের সুঘ্রাণ ধরে রাখতে পারবেন। ত্বকে পারফিউম স্প্রে করলে তা কিছুক্ষণ পরেই উবে যাবে।

    ❏ পারফিউম ঠাণ্ডা ও অন্ধকার স্থানে রাখুন: পারফিউম কেমিক্যাল দ্বারা তৈরি। সুতরাং এটি খুবই স্বাভাবিক যে পারফিউম আলো এবং তাপে অক্সিডাইজ হয়ে যেতে পারে। অক্সিডাইজ হয়ে যাওয়া পারফিউমের ঘ্রাণ নষ্ট হয়ে যায় এবং তা দেহে বেশিক্ষণ থাকেও না। তাই যদি অনেকটা সময় দেহে পছন্দের পারফিউমের সুঘ্রাণ ধরে রাখতে চান তাহলে পারফিউমের বোতল রাখুন ঠাণ্ডা ও অন্ধকার স্থানে।

    (Visited 23 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *