Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / ‘বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ নির্মাণই আ. লীগের শপথ’

‘বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ নির্মাণই আ. লীগের শপথ’

  • ১৬-১২-২০১৬
  • image-11224সংবাদ প্রতিদিন বিডি প্রতিবেদকঃ সাম্প্রদায়িকতাকে প্রতিহত করে অসাম্প্রদায়িক দেশ প্রতিষ্ঠাই বিজয় দিবসের শপথ। বিজয় দিবসের শপথ হবে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িকতা প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ নির্মাণ করা।

    আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শুক্রবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান সংলগ্ন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সামনে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

    তিনি বলেন, বিজয়কে সুসংহত করার পথে প্রধান বিপদ হলো সাম্প্রদায়িকতা। এ সাম্প্রদায়িকতাকে প্রতিরোধ করে মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠাই আওয়ামী লীগের একমাত্র চ্যালেঞ্জ।

    আওয়ামী লীগের বিজয় শোভাযাত্রা পূর্ব এ সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন।

    সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরি সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মো. মতিউর রহমান, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাহবুবুর রহমান হিরণ, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার ও ইলিয়াস হোসেন মোল্লা এমপি প্রমুখ।

    মতিয়া চৌধুরী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেছিলেন। তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সে বিচার চলছে। কোনো অপশক্তিই এ বিচার বন্ধ করতে পারবে না।

    তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু তার জীবনের সাধনায় বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে লড়াই ও সংগ্রামের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করেছিলেন। কিন্তু জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে তার স্বপ্নকে চূর্ণবিচূর্ণ করা হয়েছিল।

    সংবাদ প্রতিদিন বিডি/  এস আলিম 

    (Visited 9 times, 1 visits today)

    আরও সংবাদ

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *