Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / আর্জেন্টিনার বিদায়

আর্জেন্টিনার বিদায়

  • ১১-০৮-২০১৬
  • rio1470880637ক্রীড়া ডেস্ক : ২০০৪ ও ২০০৮, টানা দুটি অলিম্পিক ফুটবলের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। সেই আর্জেন্টিনা কিনা এবারের অলিম্পিকে গ্রুপপর্বের বাধাই পেরোতে পারল না!

    পর্তুগালের কাছে হার দিয়ে শুরু করা আর্জেন্টিনা দ্বিতীয় ম্যাচে আজেরিয়াকে হারিয়ে আশা টিকিয়ে রেখেছিল। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে হলে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে হন্ডুরাসের সঙ্গে জিততেই হতো তাদের। কিন্তু বুধবার হন্ডুরাসের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে দুবারের সোনাজয়ীরা। আর এই গ্রুপ থেকে পর্তুগালের সঙ্গী হয়ে শেষ আটে উঠে গেছে হন্ডুরাস।

    বাংলাদেশ সময় বুধবার রাতে বেলো হরিজোন্তের দ্য মিনেইরাও স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই অসংখ্য সুযোগ তৈরি করে আর্জেন্টিনা। কিন্তু প্রতিবারই সুযোগ নষ্ট করে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের হতাশ করেন আক্রমণভাগের দুই ভরসা জোনাথান কায়েরি ও অ্যাঙ্গেল কোরেয়া।

    ম্যাচের ৩৮ মিনিটে তো সুবর্ণ সুযোগই হাতছাড়া করেন কায়েরি। গোলপোস্টের সামনেই ফাঁকায় বল পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তার শট হন্ডুরাসের জাল খুঁজে পায়নি। দুই মিনিট পর সুযোগ এসেছিল কোরেয়ার সামনেও। কিন্তু তিনি ডি বক্সের ভেতর থেকে গোলরক্ষক বরাবর বল মেরে সুযোগ হাতছাড়া করেন।

    প্রথমার্ধের শেষ দিকে হন্ডুরাসের একটি পাল্টা আক্রমণ প্রতিহত করে দেন আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক জেরোনিমো রুলি। কিন্তু এর একটু পরই হন্ডুরাসের এক খেলোয়াড়কে বক্সের ভেতরে ফাউল করে বসেন তিনি। পেনাল্টি পায় হন্ডুরাস। তবে ব্রায়ান একস্তার শট ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন রুলি।

    দ্বিতীয়ার্ধে ৫৪ মিনিটে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। তবে কোরেয়ার শট পোস্টে লেগে বাইরে গেলে আরেকটি সুযোগ নষ্ট হয় তাদের। ৭৫ মিনিটে পেনাল্টি পায় হন্ডুরাসও। এবার আর সুযোগ হাতছাড়া করেনি তারা। অ্যান্থনি লোজানোর পেনাল্টি গোলে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় হন্ডুরাস।

    সে গোল আর্জেন্টিনা শোধ করে যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে। মরিসিও মার্টিনেজের ফ্রি-কিক হন্ডুরাসের এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে গোলকিপারকে ফাঁকি দিয়ে চলে যায় জালে। ক্ষণিকের জন্য আশা জাগলেও জয়সূচক গোলের দেখা আর পায়নি তারা।

     

    সংবাদ প্রতিদিন বিডি/ পা কজা

    (Visited 29 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *