Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / ফিচার / যৌবনে পা দিলেই যে গ্রামের যুবতীদের দাঁত পড়ে যায়!

যৌবনে পা দিলেই যে গ্রামের যুবতীদের দাঁত পড়ে যায়!

  • ২৮-০৭-২০১৬
  • 2hghgডেস্ক: ভারতের বিহারের হাবলি খড়গপুর বিভাগের রামনকাবাদের পূর্বি খাড়িয়া গ্রামে প্রাপ্তবয়স্ক ছেলেও আছে মেয়েও আছে কিন্তু হচ্ছে না বিয়ে। কি কারণে তাদের বিয়ে হচ্ছে না? কারণ শৈশবের পরে কৈশোরে পা দিতে না দিতেই অকালে দাঁত ঝরে পড়ে এ গ্রামের ছেলেমেয়েদের। ফোকলা পাত্র বা পাত্রীকে কেই বা বিয়ে করবে?

    অবস্থাটা বর্তমানে এতটাই শোচনীয় যে, এই গ্রামমুখো হতে চান না ভিনগ্রামের মানুষ। ফলে কার্যত একঘরে গ্রামবাসী। জানা গেছে, ইতিমধ্যে প্রায় ৫০০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে সব বয়সের মানুষ রয়েছেন।

    চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, ফ্লুওরাইড মিশ্রিত পানি খেয়ে দাঁত ঝরা বা অল্প বয়সে বুড়িয়ে যাওয়ার লক্ষণ দেখা দিচ্ছে। ২০১০ সালে মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার গ্রামে একটি পানি প্রকল্পের সূচনা করেন। কিন্তু তা কাজে লাগেনি।

    পরে ৩২ কোটি টাকা খরচ করে ফ্লুওরাইড মুক্ত পানিপ্রকল্পের কাজ হাতে দেয় সরকার। কিন্তু সেই কাজও অসম্পূর্ণ রেখে চলে যায় ২ সংস্থা। ফলে রোগের প্রকোপ বাড়তে থাকে। বর্তমানে ফ্লুওরাইড মুক্ত জলের জন্য সরকার মুঙ্গের জেলায় ৫টি ওয়াটার ATM বসিয়েছে। যার মধ্যে ২টি এই গ্রামে বসানো হয়েছে। গ্রামবাসী ৪টাকার বিনিময়ে ২০ লিটার পানি পান। তবে ইতিমধ্যেই একটি ATM খারাপ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসী।

    তবে পানি সমস্যার আপাতত একটা সমাধান হলেও যারা রোগে আক্রান্ত হয়েছেন তাঁরা ক্ষোভ চেপে রাখতে পারেননি। কারণ, রোগের কবলে পড়ে তাঁদের বাকি জীবনটাই যে নষ্ট হতে বসেছে। সুত্র-ওয়েবসাইড

    (Visited 11 times, 1 visits today)

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *