Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / জাতীয় / এটিএম কার্ড জালিয়াতি : শনাক্তরা নজরদারিতে

এটিএম কার্ড জালিয়াতি : শনাক্তরা নজরদারিতে

  • ১৭-০২-২০১৬
  • monirul1455693455
    নিজস্ব প্রতিবেদক : এটিএম বুথে কার্ড জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় ৪/৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদেরকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। খুব শিগগিরই তাদেরকে আটক করা হবে।

    বুধবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম এসব তথ্য জানান।

    তিনি বলেন, এটিএম বুথে টাকা জালিয়াতির ঘটনায় বনানী থানায় যে মামলা হয়েছিল, তা গতকাল মঙ্গলবার ডিবিতে নেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সিসি টিভির ফুটেজ ও অন্যান্য আনুষাঙ্গিক কাগজপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে। গতকাল থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে গোয়েন্দা পুলিশ এবং নবগঠিত কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কয়েকজন সদস্য মিলে তদন্ত কাজ শুরু করেছে। এরই মধ্যে জালিয়াত চক্রের ৪/৫ জন সদস্যকে শনাক্ত করা হয়েছে। বর্তমানে তাদেরকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে তাদেরকে গ্রেফতার করা হবে।

    এক প্র্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, ৪/৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে যেকোনো একজন টাকা হাতিয়ে নেওয়ার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে ৪/৫ জনের মধ্যে কে সেই জন, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সেটি শনাক্ত করতে যাচাইবাছাই করা হচ্ছে। যেহেতু বিদেশিদের প্রশ্ন, সেহেতু একেবারে নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হবে না।

    কার্ড জালিয়াতিতে বিদেশি কজন জানতে চাইলে মনিরুল ইসলাম বলেন, এদের সবাই বিদেশি নাগরিক বলে মনে হয়েছে। ছবিতে এখনো মুখমণ্ডল দেখা যায়নি। তবে তারা সাদা চামড়ার। ধারণা করা হচ্ছে, তারা পূর্ব ইউরোপের দেশের নাগরিক।

    তিনি আরো বলেন, টাকা জালিয়াতির ঘটনায় দেশীয় লোকও থাকতে পারে। এমনকি ব্যাংক কর্মকর্তাদের অনেকেই থাকতে পারেন। তবে তা যাচাইবাছাই করা হচ্ছে। এর আগেও একটি ঘটনায় একজন ব্যাংক কর্মকর্তার জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গিয়েছিল।

    অপর এক প্র্রশ্নের জবাবে অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, যাদেরকে শনাক্ত করা হয়েছে তাদের মধ্যে কেউই এখনো দেশ ত্যাগ করেননি।

    (Visited 4 times, 1 visits today)

    আরও সংবাদ

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *