Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / Slide Show / বিএনপির ‘ভিশন ২০৩০’, ২০১৭ নয় কেন?

বিএনপির ‘ভিশন ২০৩০’, ২০১৭ নয় কেন?

  • ২৯-০৩-২০১৬
  • সম্প্রতি জাতীয় কাউন্সিলে নিজস্ব রূপকল্প দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ঘোষণায় তিনি ‘ভিশন ২০৩০’ এর কথা উল্লেখ করেছেন। কিন্তু এ সরকারের মেয়াদ তো শেষ হবে ২০১৭ সালে। তাহলে কি তারা আওয়ামী লীগকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত সময় দিচ্ছে? এমন প্রশ্নই তুলেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

    তিনি বলেছেন, কাউন্সিলে খালেদা জিয়া বিএনপির ভবিষ্যৎ রূপকল্প ‘ভিশন- ২০৩০’ দিয়েছেন। আমার প্রশ্ন, ২০৩০ কেন? এই সময় ধরে আপনারা কি পথে থাকবেন? বিএনপি কী রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা যেতে চায় না? নির্বাচন ২০১৭তে না হোক, ২০১৮তে-ও না হোক, ২০১৯-এ তো হবে। সে নির্বাচনে আপনারা (নির্বাচিত) হবেন না? আপনারাই তো ক্ষমতায় যাবেন? তাহলে আপনাদের এই পশ্চাৎমুখিতা কেন?

    খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনার উচিত ছিল, ২০১৯ সাল নাগাদ বিএনপি কী করতে চায়, সেটা বলা। আপনারা দেশের মঙ্গল করবেন। শ্রমিকের জন্য কী করবেন? সেটা বলা উচিত ছিল। বলা উচিত ছিল, ওষুধের দাম কমাবেন। এসব কিছু করা অবশ্যই সম্ভব। দেশবাসীকে আপনাদের স্বপ্ন দেখানো উচিত ছিল। আপনাদের বলা দরকার ছিল, সরকারি চাকরিজীবী, সরকারি মাস্টার ও সরকারি ডাক্তাররা কোনো প্রাইভেট প্রাকটিস করতে পারবে না।

    তিনি আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মুক্তিযোদ্ধাদের সরকার। এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। ঠিক তেমনি বিএনপিও মুক্তিযোদ্ধাদের দল। আজকে অনেক মুক্তিযোদ্ধার সনদ কেটে দেয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে আমি খালেদা জিয়ার কোনো বক্তব্য দেখলাম না। ভুলটা অবশ্য খালেদা জিয়ার না, তার চারপাশে যেসব চাটুকার আছে তাদের। যাদের বয়স হয়ে গেছে, আন্ধার হয়ে গেছে চোখও।’

    ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বিএনপির মধ্যে আজকে যদি পুরোপুরি গণতন্ত্র থাকতো এবং নির্বাচন দেওয়া হতো, তাহলে খালেদা জিয়া সবাইকে হারিয়ে সর্বোচ্চ ভোটে নির্বাচিত হতেন। একইভাবে তারেক জিয়াও বিপুল ভোটে নির্বাচিত হতেন। কিন্তু সেটা হয়নি।

    গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘গণতন্ত্র, মুক্তিযুদ্ধ ও শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীরউত্তম’-শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল এ সভার আয়োজন করে।

    (Visited 4 times, 1 visits today)

    আরও সংবাদ

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *