Templates by BIGtheme NET
শিরোনামঃ
Home / অর্থ ও বাণিজ্য / পত্রপত্রিকায় লেখালেখির কারণেই দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী – Songbad Protidin BD

পত্রপত্রিকায় লেখালেখির কারণেই দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী – Songbad Protidin BD

  • ২৩-০৫-২০১৭
  • image-35496সংবাদ প্রতিদিন বিডি প্রতিবেদক: দ্রব্যমূল্য নিয়ে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় লেখালেখির কারণেই জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, এসব লেখালেখি বাদ দিলেই দ্রব্যমূল্য আর বাড়বে না।

    মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন মন্ত্রী। এ সময় আসন্ন রমজান মাস উপলক্ষে সারা দেশের বাজারে জিনিসপত্রের বাড়তি দামের কারণ সম্পর্কে জানতে চান সাংবাদিকরা।

    মন্ত্রী বলেন, কোনো একটি পত্রিকায় একটি দ্রব্যের দাম বাড়ছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করলে মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ে সেটি কেনার জন্য। পৃথিবীর কোনো দেশে রমজান উপলক্ষে জিনিসপত্রের দাম বাড়ে না, আবার এ নিয়ে সে দেশে প্রতিবেদনও হয় না। ব্যতিক্রম শুধু বাংলাদেশে। রমজান আসলেই জিনিসপত্রের দাম নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ হয় আর এর ফলে দামও বাড়তে থাকে।

    দেশের ব্যবসায়ীরা সারাবছর তেমন একটা আয় করতে পারে না উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ফলে রোজার মাস আসলেই তারা জিনিসপত্রের দাম এদিক সেদিক করে।

    পাইকারি এবং খুচরা বাজারের দামের মধ্যে অনেক পার্থক্য থাকে উল্লেখ করে সাংবাদিকরা মন্ত্রীর কাছে জানতে চান, এটা নিয়ে মনিটরিং হচ্ছে না কেন? জবাবে মন্ত্রী বলেন, দোকানে দোকানে গিয়ে দ্রব্যমূল্য মনিটরিং করা সম্ভব না। এটা আমারো প্রশ্ন যে জিনিসপত্রের প্রচুর সরবরাহ, কিস্তু দাম বাড়ছে কেন?

    তোফায়েল আহমেদ জানান, রমজান এলে একেসাথে ১৫-৩০ দিনের বাজার করে ফেলেন অনেকে। ফলে দাম বেড়ে যায়। ১৫ রমজানের পরে জিনিসপত্রের দাম স্বাভাবিক ভাবেই কমে যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

    জোর করে দাম কমানো যাবে না উল্লেখ করে ব্যবসায়ীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, অন্ততপক্ষে রমজান উপলক্ষে মানুষের সেন্টিমেন্টের কথা চিন্তা করে হলেও আপনারা দাম বাড়াবেন না।

    সংবাদ প্রতিদিন বিডি/ ইকবাল আহমেদ 

    (Visited 8 times, 1 visits today)

    আরও সংবাদ

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    *